মেইন ম্যেনু

ভোলায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টায় ভাইসহ সেনা সদস্য শ্রীঘরে

ভোলায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টায় এক সেনা সদস্য ও তার ছোট ভাইকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। ঘটনার র্দীঘ একবছর পরে আজ বুধবার আসামিরা ভোলার জেলা ও দায়রা জজ আ. ক. ম জহুরুল আলমের আদালতে আত্মসর্মপন করে জামিন আবেদন করলে বিচারক জামিন না মঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর এ আদেশ দেন। মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৬ই জুলাই ভোলার সদর উপজেলার ২ নং ইলিশা ইউনিয়নের ৭ নং ওর্য়াডের আব্দুল লতিফ মিলিটারির ছেলে নূর মোহাম্মদ বাদল তার স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেন। একাজে তার ছোট ভাই মোহম্মদ সোহেলও বাদলকে সাহায্য করে বলে মামলায় বাদী অভিযোগ করেন। খবর পেয়ে ভোলা সদর থানার এসআই মোহাম্মদ সোলাইয়াম মাহমুদের নেতেৃত্বে একদল পুলিশ দরজা ভেঙ্গে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় দায়ের মামলায় দীর্ঘ একবছর পলাতক থাকার পর বাদল ও তার ছোট ভাই মোহম্মদ সোহেল আজ ভোলার নারী ও শিশু দমন নির্যাতন আদালতে আত্মসর্মপন করলে বিচারক এ আদেশ দেন।






মন্তব্য চালু নেই