মেইন ম্যেনু

ভোলা জেলা দায়রা জজকে বিদায় সংবর্ধনা

ভোলায় জেলা ও দায়রা জজ আ.ক.ম জহুরুল আলমকে বিদায়ী সংবর্ধনা দিয়েছে আ্ওয়ামী আইনজীবি পরিষদ। সোমবার সন্ধ্যায় আইজীবি সমিতির উত্তর ভবনে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে এ্যাডভোকেট আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে ও আওয়ামী আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাবেব পিপি জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আ.ক.ম. জহুরুল আলম। গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ প্রশাসক আবদুল মমিন টুলু।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো.আকতারুজ্জামান, যুগ্ম জেলা জজ উম্মে হাবিবা মন্ডল, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাসফিকুল হক, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নাহিদুর রহমান, সিনিয়র সহকারী জজ মো. জাকির হোসাইন, সিনিয়র সহকারী জজ কামাল উদ্দিন, সহকারী জজ মো.আসিফ এলাহী। এসময় আইনজীবিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পিপি এ্যাডভোকেট সৈয়দ আশরাফ হোসেন লাবু, সিনিয়র এ্যাডভোকেট দেলোয়ার হোসেন, এ্যাডভোকেট মাকসুদুর রহমান, সাবেক সভাপতি এ্যাডভোকেট মহিব্বুল্লাহ, সাবেক পিপি এ্যাভোকেট জুলফিকার আহমেদ, এ্যাডভোকেট অতিন্দ্রলাল ব্যানার্জি, এ্যাডভোকেট বশির উল্লাহ, এ্যডভোকেট শহীদুল্লাহ, এ্যাডভোকেট নুরুল আমিন নুরনবী, এ্যাডভোকেট স্বপণ কৃষ্ণ দে, এ্যাডভোকেট মাহাবুবুল হক লিটু, এ্যাডভোকেট কিরন তালুকদার, এ্যাডভোকেট শোয়েব হোসেন মামুন প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আজকের এ বিদায়ী জজ মহোদয় তার আন্তরিকতা এবং সততা দিয়ে ভোলার বিচার সংশ্লিষ্টদের মনে স্থান করে নিয়েছেন। তিনি দেশে প্রথম আদালত প্রাঙ্গনে বিচার প্রার্থীদের বসার ব্যবস্থা করেছেন। তিনি তার সময়কালে মামলার জট কমাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন যার সুফল পেয়েছে বিচার প্রার্থীরা। বক্তাগণ তার দীর্ঘায়ু কামনা করেন।






মন্তব্য চালু নেই