মেইন ম্যেনু

মডেল শৈলীর আত্মহত্যায় অভি কারাগারে

মডেল সিনহা ওরফে মাহাতারা শৈলীর আত্মহত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় তার স্বামী নাট্য অভিনেতা অভিজিৎ বাগচী ওরফে অভি চৌধুরীকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রোববার দুই দিনের রিমান্ড শেষে অভিকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বনানী থানার উপপরিদর্শক শ্রীদাম চন্দ্র রায়। তবে এদিন অভির বিরুদ্ধে রিমান্ডের কোনো আবেদন না থাকায় ঢাকা মহানগর হাকিম কাজী কামরুল ইসলাম তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ১৬ জুন অভির দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

গত ১৪ জুন দিবাগত রাত ১টার দিকে শৈলীকে তার স্বামী অভিজিৎ চৌধুরী অসুস্থ অবস্থায় মহাখালীর মেট্রোপলিটন হাসপাতালে ভর্তি করেন। রাত ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শৈলীর মৃত্যু হয়। এর আগে রাত ১টার দিকে অভি তাকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসেন। শৈলীকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় অভি চৌধুরী।

গুলশানের নিকেতন বাজার এলাকার ১০৫/৩ নম্বর বাড়িতে শৈলী-অভি দম্পত্তি ভাড়া থাকতেন।

অভি চৌধুরী নাট্য অভিনেতা। শৈলী কয়েকটি পণ্যের বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন। কয়েকটি নাটকও করেছেন।

শৈলীর আত্মহত্যার ঘটনায় তার বাবা পুলিশের সাবেক কর্মকর্তা মতিউর রহমান বনানী থানায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে বনানী থানায় মামলাটি করেন।






মন্তব্য চালু নেই