মেইন ম্যেনু

মদপানে ক্যানসার ও গর্ভপাত ঝুঁকিতে নারীরা

অনেক নারী মদপান করেন। অনুষ্ঠান উদযাপন করতে গিয়ে কৌতূহলী হয়ে তারা মদ্যপান করেন। পরে ধীরে ধীরে মদ তাকে গ্রাস করে ফেলে। অ্যালকোহল কিছু সময়ের জন্য আপনাকে বিনোদন দেয়, সুন্দর কিছু মুহূর্ত উপভোগ করতে সহায়তা করে। পরে এ নেশা ধীরে ধীরে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়। কিন্তু আমরা জানি না অ্যালকোহল আমাদের শরীরে কী প্রভাব ফেলছে বা ক্ষতি করছে?

কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না অতিরিক্ত মদপান আপনার জীবন গ্রাস করতে পারে, দেখা দিতে পারে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যা। অ্যালকোহল পানে ক্যান্সার, ডায়াবেটিস ও যকৃতসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যায় পড়তে পারেন আপনি। এ ব্যাপারে সময়ের আগেই আপনাকে সাবধান হতে হবে। তাহলে আর দেরি কেন আসুন জেনে নেই অ্যালকোহল পান আপনার জন্য কতোটা ঝুঁকিপূর্ণ?

অ্যালকোহল শরীরের পুষ্টি কমিয়ে রোগা করে দেয়। মদ রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয় ও হাড়ের ক্ষয় করে।

প্রতিদিন মদপানে নারীদের স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে। শুধু তাই নয় কোলন ক্যান্সার ও লিভার ক্যান্সার দেখা দেয়।

গর্ভাবস্থায় নারীদের মদ্যপান ভ্রূণের জন্য ক্ষতিকর। অ্যাকোহলপানকারী মায়েদের মেজাজ খিটখিটে হয়। আচরণগত সমস্যার কারণে অস্বাভাবিক শিশু জন্ম দেন তারা।

নারীদের মদ্যপান তাদের মাসিক চক্রকে প্রভাবিত করে। এতে তাদের মৃত সন্তান জন্ম, অপরিণত সন্তান প্রসব, গর্ভপাত এবং শেষ পর্যন্ত বন্ধ্যাত্বতে গিয়ে পৌঁছাতে পারে। এ কারণে স্বামী-স্ত্রীর সুখী সংসারেও ফাটল দেখা দেয়।

অ্যাকোহল পুরুষের থেকে নারীদের বেশি ক্ষতি করে। অ্যালকোহলের কারণে যকৃতের রোগ এবং লিভার সিরোসিস ভোগেন নারীরা।

গবেষণায় দেখা গেছে, দৈনিক মদপানে পুরুষের তুলনায় আসক্তি বাড়ে নারীদের। পুরুষদের তুলনায় নারীরা সহজেই অ্যালকোহলের ওপর নির্ভর হয়ে পড়েন এবং তাদের আগে গ্রাস করে অ্যালকোহল। এতে পুরুষের তুলনায় নারীরা বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হন। এবং নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পথে পা বাড়ান।






মন্তব্য চালু নেই