মেইন ম্যেনু

মধ্যপ্রাচ্যে কাজের সুযোগ কমছে

সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে চাকরির সুযোগ কমছে। আরব আমিরাতে প্রায় ২২ ভাগ কর্মসংস্থানের সুযোগ কমেছে। অনলাইনে তালিকাভুক্ত কাজের সুযোগ এ বছর প্রথমবারের মত উল্লেখযোগ্যভাবে কমে গেছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

মনস্টার ইমপ্লয়মেন্ট ইনডেক্সের (এমইআই) সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, গত বছরের এই সময়ে চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি অনেক বেশি ছিল। কিন্তু এ বছর অনলাইনে চাকরির ক্ষেত্রে বিভিন্ন কর্মজীবী প্লাটফর্ম এবং ওয়েবসাইটে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২২ ভাগ কমেছে। এ বছরের শুরু থেকে আরব আমিরাতে চাকরির ক্ষেত্রে এটাই প্রথম নেতিবাচক প্রভাব।

তবে আতিথেয়তা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে চাকরির সুযোগ কমেছে সবচেয়ে বেশি। এক্ষেত্রে প্রায় ৩৮ ভাগ চাকরির সুযোগ কমেছে। এছাড়া তেল এবং গ্যাস ক্ষেত্রে চাকরি এখনো সোনার হরিণ। এসব ক্ষেত্রে চাকরি আগের মতই প্রতিযোগিতাপূর্ণই রয়ে গেছে। এক্ষেত্রে চাকরির সুযোগ প্রায় ৩৩ ভাগ কমেছে।

চাকরিপ্রার্থীরা ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং ইনস্যুরেন্স কোম্পানিগুলোতে চাকরির আশা প্রায় হারিয়ে ফেলেছেন। কেননা দেশের পুরো চাকরিখাত ২২ ভাগ কমে গেছে।

বেশ কিছু সেক্টরে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের কাজে নেয়া হচ্ছে। আর বিজ্ঞপ্তিতে চাকরি প্রার্থীদের অভ্জ্ঞিতার কথাও উল্লেখ করা হয়। ফলে নতুন লোকেদের জন্য কাজের ব্যবস্থা করা আরো বেশি কঠিন হয়ে পড়ছে।

তবে বেশ কিছু হেলথ কেয়ার প্রজেক্টের কাজ হাতে রয়েছে। এগুলো শেষ হলে চাকরির সুযোগ অনেক বাড়বে বলে আশা করছে আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, বাহরাইনে কর্মক্ষেত্রে সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে ১১ ভাগ। এছাড়া কুয়েত এবং ওমানে নতুন কাজের সৃষ্টি হয়েছে ১০ ভাগ। অপরদিকে, সৌদি আরবে কাজের সুযোগ কমেছে ১৫ ভাগ এবং কাতারে কাজের সুযোগ কমেছে ২৫ ভাগ। এছাড়া মিসরে কাজের সুযোগ কমেছে প্রায় ৩৪ ভাগ।

অনুন্নত এবং উন্নয়নশীল দেশ থেকে প্রচুর মানুষ কাজের সন্ধানে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমাচ্ছে। এসব দেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ কমে গেলে অনেক দেশই বিপুল পরিমাণ জনশক্তি নিয়ে চাপের মুখে পড়বে।






মন্তব্য চালু নেই