মেইন ম্যেনু

মমতাজ রূপে নওশাবা আহমেদ

সম্রাট শাহজাহান ও মমতাজের অমর প্রেমকাহিনী পৃথিবীর সবারই কম বেশি জানা। আর মোঘল সম্রাট আকবরের দৌহিত্র সম্রাট শাহজাহান, তাঁর প্রিয়তম স্ত্রী আরজুমান্দ বানু বেগমের (মমতাজ মহল নামেই বেশি পরিচিত) স্মৃতিস্তম্ভ হিসেবে নির্মিত তাজমহলের জন্য বিখ্যাত। গতকাল অভিনয়শিল্পী নওশাবা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ‘সেলুলয়েডে অতীতের স্বপ্ন’ শিরোনামে মমতাজ রূপে নিজেকে সাজিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেন। আর সে সূত্র ধরেই তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

এ বিষয়ে তিনি বলেন,‘ গত দুদিন আগে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের কোক স্টুডিওতে তাজমহলের আদলে সেট নির্মাণ করে একটি চকলেটের বিজ্ঞাপনের দৃশ্যধারণ করা হয়। এটি সে সময়েরই একটি দৃশ্য। আমরা চেষ্টা করেছি ওই সময়ের আবহটা ধরে রাখার। সাজ–পোশাক থেকে শুরু করে পুরো সেটটাই ওই আদলে করা। এতে শাহজাহান রূপে দেখা যাবে মডেল আসিফ আদনানকে। বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছেন আশফাকুজ্জামান বিপুল।’

নওশাবা বর্তমানে তানিম রহমানের নতুন ছবি ‘স্বপ্নবাড়ি’র ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। এই ছবিতে তাঁর সহশিল্পী শিমুল খান। ছবির চরিত্র নিয়ে নওশাবা বলেন,‘ ‘আমি এখনই আমার চরিত্রটির বিষয়ে কিছু বলতে চাই না। তবে পুরো ছবিটির মতো আমার চরিত্রটিও একটা বড় চমক। যা শুরুতে এক রকম মনে হবে, পরে ধীরে ধীরে দর্শক বিষয়টি বুঝতে পারবে। এখন বললে চমক নষ্ট হয়ে যাবে। শুধু এটুকু বলতে চাই, আগে এ ধরনের চরিত্রে অভিনয় করিনি।’

এদিকে নওশাবা আহমেদ অভিনীত মুক্তির তালিকায় থাকা ছবিরগুলোর মধ্যে রয়েছে, ‘চন্দ্রাবতীর কথা’, ‘ঢাকা অ্যাটাক’, ‘ভুবন মাঝি’এবং ‘প্রতিরুদ্ধ’। তবে ‘আলগা নোঙর’ ছবিটির কাজ ইতিমধ্যে শেষ। খুব শিগগিরই এটি মুক্তি পাবে। এছাড়াও একটি নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের কথা রয়েছে তার। এটি একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। ১০ থেকে ১১ মিনিট ব্যাপ্তির। নাম ‘বৃত্তে বিষবৃক্ষ’। চলচ্চিত্রটিতে নওশাবা অভিনয় করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী হিসেবে।






মন্তব্য চালু নেই