মেইন ম্যেনু

মরে গেলে ‘বোন’ বেচে থাকলে ‘মাল’, আর কত?

কিশোরী সোহাগী জাহান তনুকে ধর্ষণের পর হত্যার প্রতিবাদ ও ঘাতকের কঠোর শাস্তির দাবিতে আজো কর্মসূচি পালিত হয়েছে ঢাবি ক্যাম্পাসে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত রেখেছেন বিভিন্ন শ্রেনী পেশা ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো। উপস্থিত সবার মধ্যে একই আওয়াজ একই প্রশ্ন-এভাবে আর কতদিন?

আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় মানববন্ধন করেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক ইভেন্ট ‘we are tonu’ । অপরাধীর কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়ে ইভেন্টের সদস্য দেবযানী বলেন, একের পর এক হত্যা হচ্ছে, আন্দোলন হচ্ছে অথচ বিচার হচ্ছেনা। আমাদের কি বাইরে বেরোতে দেবেন না? অনেকে আবার যুক্তিখাড়া করে ধর্ষকের পক্ষ নিতে চাচ্ছেন! আমরা যাব কোথায়? এই হত্যার প্রকাশ্য শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব। তিনি আরো বলেন, তনু খুন হয়েছে এখন আবেগের রোল উঠেছে। অথচ বেচে থাকলে হয়তো অনেকের চোখেই ‘মাল’ ছিলো। মরে গেলে বোন, বেচে থাকল ‘মাল’ আর কতদিন? ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গীতি আরা নাসরিন জানান, কোন ছল নয়। অবিলম্বে হত্যার সর্বোচ্চ শাস্তি ও আমাদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তনে সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও মিডিয়াকে আরো সোচ্চার হওয়ার বিকল্প নেই।

1238_106872_3

তনু হত্যার শাস্তির দাবিতে একই সময়ে টিএসসি হয়ে শাহবাগ অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল করেন সামাজিক সংগঠন ‘প্রচেষ্টা। মিছিলটি শাহবাগ গিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতার মধ্য দিয়ে শেষ হয়। উল্লেখ্য, গত রবিবার (২০ মার্চ) রাত ১০টায় কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের অলিপুর এলাকায় একটি কালভার্টের কাছ থেকে পুলিশ নিহত তনুর লাশ উদ্ধার করে।হত্যার আগে তাকে ধর্ষণ করা হয়।

doha (2)_106872_4 12_106872_2






মন্তব্য চালু নেই