মেইন ম্যেনু

মশার ৯ শত্রু সম্পর্কে জানুন….

মশার যন্ত্রণায় প্রাণ অতিষ্ঠ হয়ে যায়। কামান দাগাতে মন চায়। মশা তাড়ানোর কোনো উপায়ই যেন কাজে লাগে। এ অত্যাচান থেকে বাঁচতে কিছুটা সহায়তা করবে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ। এখানে তারা জানাচ্ছেন, মশা কোন জিনিসগুলো রীতিমতো ঘৃণা করে। সাতটি জিনিস তারা সহজে জয় করতে পারে না।

১. একটি ভালো মানের পাখা : বাড়ির আশপাশে গাছপালা থাকলে মশা উপদ্রপ বেশি হয়। এদের তাড়াতে বাড়িতে একটি শক্তিশালী ফ্যান আনতে পারেন। মশা ওড়ার ক্ষেত্রে খুবই দুর্বল প্রাণী। বেশি বাতাসে উড়তে পারে না তারা। জোরে বাসাস বইলে মশার অত্যাচার অনেকটা কমবে।

২. পিকারিডিন : সবাই জানেন, মশা তাড়ানোর সবচেয়ে কার্যকর উপাদান হলো ডিট। আসলে তা নয়। পিকারিডিন মশার জম। এর উচ্চারণ পিহ-কেয়ার-এ-ডিন। এটা একটা সিনথেটিক যৌগ যা তৈরি হয় উদ্ভিদ থেকে। বহু আগে থেকে এটি ইউরোপ ও অস্ট্রেলিয়ায় ব্যবহৃত হতো। ২০০৫ সাল থেকে আমেরিকায় এর বিক্রিকে বৈধ করা হয়। এটি ডিটের চেয়ে বেশি শক্তিশালী। বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন গ্লোবাল হেলথ প্রোগ্রামে জানায়, পিকারিডিনের ব্যবহারে মশা বহু দূরে অবস্থান করে।

৩. ঢিলেঢালা পোশাক : ত্বকে মশার কামড় থেকে বাঁচতে হলে ঢিলেঢালা পোশাক পরতে হবে। কাপড়ে মশা বসলেও কামড়াতে পারবে না। তাই এমন শার্ট বা প্যান্ট পরুন। তখন মশা শুধু কাপড়কেউ কামড়াবে।

৪. অ্যালকোহলবিহীন দেহ : ইউনিভার্সিটি অব উইনকনসিনের এন্টোমলোজিস্ট সুসান পাসকেউইৎজ জানান, মশা আঠালো ও ঘামের ত্বকে কামড়াতে চায়। আমেরিকান মসকিউটো কন্ট্রোল অ্যাসোসিয়েশনের টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজর জো কনলন জানান, যারা অ্যালকোহল পান করেন তাদের ত্বক মশাদের আগ্রহের বিষয় হয়ে ওঠে।

৫. হালকা রংয়ের পোশাক : মশা অন্ধকার ও গাঢ় রংয়ের প্রতি আকর্ষিত হয়। তাই গাঢ় রংয়ের পোশা পরলে মশা দ্রুত কাছে আসে। তাই হালকা রংয়ের পোশাক পরুন। এতে খুব বেশি অত্যাচার সহ্য করতে হবে না।

৬. সাইট্রাস : লেবুর পাতা, পুদিনা পাতা, রোজমেরি ইত্যাদি খেলে মশা দূরে থাকে। এদের গন্ধ মোটেও পছন্দ করে না মশা। এগুলো সবই সাইট্রাস পরিবারের উদ্ভিদ।

৭. ধোঁয়া : মশারা আসলে ধোঁয়া ভয় পায় না। তবে বিশেষজ্ঞ ব্রুস লুবিনের মতে, কেবলমাত্র ডিম বহনকারী কার্ডবোর্ড কার্টুনের ধোঁয়া সহ্য হয় না তাদের। এর একটি কোণ কয়েলের মতো জ্বালিয়ে দিন। নিরাপদ কোনো স্থানে রেখে দিন। দেখবেন মশা উধাও।

৮. লেমন ইউক্যালিপটাসের তেল : নিউ ম্যাক্সিকো স্টেট ইউনিভার্সিটির এক দল গবেষক মশা তাড়ানোর বাণিজ্যিক পণ্যগুলো নিয়ে গবেষণা পরিচালনা করেন। তারা দেখেন, যে পণ্যে লেমন ইউক্যালিপটাসের তেল রয়েছে তা মশা তাড়াতে ওস্তাদ। এই তেল দীর্ঘমেয়াদে মশাকে দূরে রাখে।

৯. শুষ্কতা : স্থির পানি সবচেয়ে পছন্দ মশার। তাই ছোট একটি পুকুর বা বাথটাবের পানি মশার আদর্শ স্থান। একটি গামলায় পানি দীর্ঘ সময় রেখে দিলেই মশা ডিম পাড়ার পাঁয়তাড়া করে। অর্থাৎ, শুষ্কতা মশার মোটেও পছন্দ নয়। বাড়ির ভেতরে ও বাইরে পানি জমে থাকা অংশগুলো পরিষ্কার করুন। পানি জমতে দেবেন না। এতে মশার অত্যাচার অনেকটা কমে আসবে। সূত্র : এমএসএন






মন্তব্য চালু নেই