মেইন ম্যেনু

মশা মারতে মেয়র নিজেই কাঁধে নিলেন মেশিন

ঢাকাবাসীকে মশার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দিতে লার‌ভিসাইড মে‌শিন কাঁধে নিয়ে নিজেই নেমে পড়েছেন দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন। এভানেই মশার প্রজনন স্থানগুলো স্প্রে করে সপ্তাহব্যাপী মশকনিধন ক্র্যাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করলেন তিনি।

‌রোববার (৭ আগস্ট) সকালে ধানমণ্ডি লেক রবীন্দ্র সরোবরে এ প্রোগ্রামের উদ্বোধনী করেন তিনি।

এলাকায় সিটি করপোরেশনের স্প্রে ম্যান বা মশকনিধন কর্মী না দেখলে আমাদের হটলাইন ‘৯৫৫৬০১৪’ এ কল করার অনুরোধ জানিয়েছেন মেয়র। বলেছেন, জানালে সঙ্গে সঙ্গেই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নগরবাসীর প্রতি মেয়রের আহ্বান, আপনার বাসার ছাদে ফুলের টবে, প‌রিত্যক্ত টায়ার কিংবা যেকোনো খা‌লিপাত্রে পা‌নি জমতে দেবেন না। স্বচ্ছ পা‌নিতে এডিস মশার বংশ‌বিস্তার ঘটে বে‌শি। তাই সবাই মিলে এডিস মশা প্রতিরোধে সোচ্চার হই।

‌তি‌নি বলেন, এখন বর্ষাকাল, মশার বংশবিস্তার প্রতিরোধে সচেতন না হলে ডেঙ্গু জ্বরের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যাবে না। তাই আসুন সবাই মিলে ডেঙ্গু প্রতিরোধ ক‌রি।

বক্তব্য শেষে লার‌ভিসাইড মে‌শিন কাঁধে নিয়ে মেয়র প‌রিত্যক্ত টায়ারে স্প্রে করেন। এছাড়া ফগার মে‌শিনও কাঁধে তুলে নেন তিনি। এরপর এক‌টি র‌্যা‌লিতে অংশ নিয়ে মেয়র ডেঙ্গুবিরোধী লিফলেট বিতরণ করেন।

সপ্তাহব্যাপী মশকনিধন ক্র্যাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপ‌স্থিত ছিলেন ডিএস‌সি‌সির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি. ‌জেনারেল ডা. মো. সাইদুর রহমান, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক কমোডর মো. কুতুব উদ্দিন বখ‌তিয়ার প্রমুখ।

এদিকে মেয়র সাঈদ খোকন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় চলমান সড়ক মেরামত উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে বের হন। তিনি ধানমণ্ডির ৪, ১৫ ও ১৪ এলাকায় চলমান উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করে রাস্তার মধ্যে স্তূপ করে রাখা মাটি ও বর্জ্য অপসারণের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। এসময় নিউমার্কেট এলাকাও পরিদর্শন করেছেন তিনি। এতে গাউছিয়া সংযোগকারী ফুটওভার ব্রিজ এবং ২নং গেটের পাশে স্থাপিত ফুটওভার ব্রিজ দুটিতে অত্যাধুনিক চলন্ত ওভারব্রিজ (এস্কেলেটর) স্থাপনের নির্দেশ দেন।






মন্তব্য চালু নেই