মেইন ম্যেনু

মাকে হারিয়ে নির্বাক দিতির দুই সন্তান

ক্যানসারের সঙ্গে দীর্ঘ আট মাস যুদ্ধ করে অবশেষে রোববার বিকেল ৪টা ৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন অভিনেত্রী পারভীন সুলতানা দিতি। শুধু দিতিই নয় তার সঙ্গে যুদ্ধ করেছে তার মেয়ে লামিয়া ও ছেলে দিপ্ত। মায়ের পাশ থেকে এক মূহুর্তও নড়েনি তারা।ক্লান্তি এসেছে, মায়ের মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও শোক চেপে রেখে মায়ের সেবা করে গেছেন দু’জন।

এফডিসিতে দিতির কফিনে মোড়া নিথর দেহের পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন শোকে পাথর দিতি কন্যা লামিয়া। নির্বাক। পাশে দাঁড়িয়ে ভাই দীপ্ত চৌধুরী।

রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে সবাই যখন দিতির মৃত্যুর খবরে ছুটে আসছে তখন মেয়ে লামিয়া মুখে কোন কথাই ছিলো। শুধু নিরবে চোখের জল ফেলেছেন।

এদিকে মায়ের অসুস্থতার খবর প্রকাশ নিয়ে শুরু থেকেই মিডিয়ার উপর বিরক্ত ছিলেন লামিয়া চৌধুরী। তাই রোববার রাতে যখন দিতিকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য তার মরদেহ এফডিসিতে নেয়ার দাবি উঠল তখন তিনি আপত্তি তুলেন।

শেষ পর্যন্ত সোমবার সকালে এফডিসিতে দিতির মরদেহ নিয়ে আসা হয়। এ সময় উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমার মা যত্ন নিয়ে অভিনয় করছেন। তার কাজের প্রতি একটা কমিটমেন্ট ছিলো। সকাল থেকে রাত শুধু কাজই করতেন। যাদের জন্য এত কষ্ট করতেন তাদের কেও বুঝতে দেননি যে তিনি অসুস্থ। তাই তার জন্য সকলে দোয়া করবেন।’






মন্তব্য চালু নেই