মেইন ম্যেনু

মাগফিরাত দশকের শেষ জুমার নামাজ আদায়

পবিত্র রমজানের মাগফিরাত দশকের শেষ জুমার নামাজ আদায় করেছেন দেশের ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। জান্নাত লাভের অপার এই ইবাদত (নামাজ) থেকে রোদ কিংবা বৃষ্টির কোনো বাধাই তাদেরকে আটকে রাখতে পারেনি। নামাজ শেষে আল্লাহর শুকরিয়া আর দোয়া করতে করতে বাড়ি ফিরেছেন মুসল্লিরা।

শুক্রবার (২৪ জুন) রাজধানীর প্রায় সকল মসজিদেই এমন দৃশ্য লক্ষ করা যায়। জুমার নামাজে ধারণ ক্ষমতার বাইরে মুসল্লিরা সমবেত হওয়ায় ৪/৫ তলা মসজিদও পরিপূর্ণ হয়ে যায়। তাই অনেককেই রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে মসজিদ সংলগ্ন রাস্তায় জুমার নামাজ আদায় করতে হয়।

এর আগে জুমার আজানের পর নামাজকে কেন্দ্র করে মসজিদে-মসজিদে সমবেত হতে থাকেন হাজারও মুসল্লি। তখন মুসল্লিদের ভিড়ে ক্রমশ ভরে উঠতে থাকে মসজিদের প্রতিটি তলা।

মসজিদে জায়গা না পেয়ে অনেকেই মসজিদ সংলগ্ন রাস্তায় নামাজ আদায়ে দাঁড়িয়ে যান। কেউ কেউ পাটের চট বা প্লাস্টিকের পাটি রাস্তায় বিছিয়ে বাইরের খরতাপ রোদ এবং গুড়িগুড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে জুমার নামাজের উদ্দেশ্যে দাঁড়িয়ে যান।

কিন্তু জুমার নামাজের কিছু পূর্বের বৃষ্টিতে ভিজে থাকা রাস্তার পানি চট এবং পাটির উপরে উঠে আসে। এতে মুসল্লিদের পরিহিত কাপড়ের বিভিন্ন অংশ ভিজে যায়। তবে এ বাধাও অতিক্রম করে মুসল্লিরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে জুমার নামাজ আদায় করেন।

নামাজ শেষে প্রত্যেকেই আল্লাহর দরবারে হাত তোলেন। মোনাজাতের মাধ্যমে তারা আল্লার কাছে নিজের-পরিবারের-স্বজনদের জীবনের সকল গুনাহ মাফের আরজি জানান। এ সময় সকলে সকলের সাফল্য ও উন্নতি কামনা করেও দোয়া করেন।






মন্তব্য চালু নেই