মেইন ম্যেনু

মাগুরায় নির্বাচনী সহিংসতায় একজন খুন, আহত ২০ : ৪০টি বাড়ি ভাংচুর লুটপাট

মাগুরা প্রতিনিধি : মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার গয়েশপুর ইউনিয়নের চরজোকা গ্রামে নির্বাচনী সহিংসতায় (সোমবার) সকালে ০১ জন নিহত এবং অন্ত:ত ২০ জন আহত হয়েছে। এ সময় ৪০টি বাড়ি ভাংচুর লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের জন্য পুলিশ প্রায় ১১০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েছে। ৩য় ধাপের নির্বাচনে বিজয়ী আ’লীগ প্রার্থী আব্দুল হালিম ও পরাজিত আ’লীগ বিদ্রোহী ইউসুফ মন্ডলের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সকালে সংঘর্ষ কালে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আব্দুল হালিম চেয়ারম্যানের দলীয় বাবলু মিয়া (৩৫) নামের একজন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এসময় উভয় পক্ষের অন্তত ২০জন আহত হয়। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। শ্রীপুর থানার ওসি রেজাউল ইসলাম এ নিহত ও গুড়ি ছোড়ার খবর নিশ্চিত করেছেন।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষ দর্শিরা জানান, বাবলু নিহত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে বিদ্রোহী প্রার্থী ইউসুফ মন্ডলের কর্মী সমর্থকরা গ্রেফতার আতঙ্কে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। তাদের বাড়িঘর পুরুষ শূন্য হয়ে পড়ায় সে সুযোগে প্রতিপক্ষরা ইউসূফ মন্ডলের দলীয় লোক জনের অন্ত:ত ৪০/৪৫টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করে।

আহতদের মধ্যে হালিম চেয়ারম্যানের দলীয় আনোয়ার হোসেন (৪৫) ও ফয়জাল মোল্যা (৩০) নামের দু’জন মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। অন্যরা গ্রেফতার আতঙ্কে গোপনে পার্শ্ববর্তী রাজবাড়ী ও ঝিনাইদাহ জেলায় এবং স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছে বলে জানাগেছে। নিহত বাবলুর লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিকাল ৫ টা পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের বা কেউ গ্রেফতার হয়নি। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই