মেইন ম্যেনু

মাগুরায় বেশি দামে চামড়া ক্রয় করে বিপাকে ব্যবসায়ীরা

মাগুরা প্রতিনিধি : প্রতি বছর কোরবানির ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীরা চামড়া থেকে লাভজনক অর্থ অর্জন করে থাকেন । প্রতিটি জেলায় তৃর্ণমুল পর্যায় থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্থান থেকে চামড়া ব্যবসায়ীরা চামড়া ক্রয় করে থাকেন । কিন্তু এ বছর ঢাকা ট্যানারি বাজার চামড়া সমিতি থেকে প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ৪০ টাকা ও ছাগলের চামড়া প্রতিবর্গ ফুট ২০ টাকা হারে নিধারণ করে দেয় । এত কম দামে চামড়ার দাম নির্ধারন করে দেওয়ায় বিপাকে পড়েছে মাগুরা জেলার চামড়া ব্যবসায়ীরা ।

মাগুরা নতুন বাজার চামড়া ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম জানান , এবার কোরবানি ঈদে ভালো চামড়া সংগ্রহ করেছি । তবে বেশি দামে চামড়া ক্রয় করে বিপাকে পড়েছি আমরা । ঢাকা ট্যানারি সমিতি প্রতিবর্গ ফুট চামড়া কম দামে নির্ধারণ করায় আমরা লাভের মুখদেখছি না । বিশেষ করে কাচা চামড়া লবণ দিয়ে প্রস্তুত করতে হয় । কিন্তু লবণের দাম বাজারে বেড়ে যাওয়ায় আমরা চামড়া প্রস্তুত করতে হিমমিস খাচ্ছি । একটি চামড়া ভালো ভাবে প্রস্তুত করতে অনেক লবণ দিতে হয় । আর লবণের দাম আমাদের হাতের নাগালে না থাকার কারণে আমরা চামড়া প্রস্তুত করতে পারছি না । একদিকে বেশি দামে চামড়া কিনে আমরা নাজেহাল অন্যদিকে লবনের দাম বৃদ্ধি পাওয়াতে ক্ষতিগ্রস্ত ।

মাগুরা পুরাতন বাজারের চামড়া ব্যবসায়ীরা জানান , এবারের ঈদে চামড়া বাজারে দর পতনের ফলে বাজার মন্দ ভাব কাটেনি । ভালো দাম পাব না বিধায় চামড়া সংগ্রহ করেছি কম। আবার যা করেছি তা ভালো ভাবে সংরক্ষণ করতে পারছি না । বিশেষ লবণের দাম বেড়ে যাওয়ায় আমরা চামড়া সংরক্ষণ করতে পারছি না । ফলে সংগ্রহ করা অনেক চামড়া নষ্ট হওয়ার আশঙ্কায় আমরা শঙ্কিত ।

পুলিশ প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে , এ বছর চামড়া পাচার রোধে মহাসড়ক গুলোতে পুলিশি টহল জোরদার রয়েছে । চামড়া যাতে পাচার না হয় সেজন্য দিনে-রাতে সড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলোতে পুলিশ টহল দিয়ে কাজ করছে । পণ্য বোঝায় প্রতিটি পিকআপ, ট্রাক সহ অন্যান্য যানবাহন গুলোতে তল্লাশি অব্যাহত রয়েছে ।






মন্তব্য চালু নেই