মেইন ম্যেনু

মাথা নাকি চোখ ব্যথা?

মাথাব্যথা হলে আমরা শুধু মাথাকেই দোষারোপ করে থাকি। অথচ প্রচণ্ড মাথাব্যথার পেছনে অনেক সময় চোখও কিন্তু দায়ি থাকে। তাই মাথাব্যথা হলেই নিউরোলোজিস্ট বা নিউরোসার্জনের কাছে ছুটলে তার মুক্তি মেলে না। কিছুতেই বুঝতে পারেন না মাথা নাকি চোখ ব্যথা করছে। এমন সময় চোখের ডাক্তারও দেখানো যেতে পারে।

মাথা ব্যথা হলে চোখের সমস্যার কথা অবশ্যই বিবেচনা করতে হবে। মায়োপিয়া বা হ্রস্ব দৃষ্টির কারণে এই সমস্যা হতে পারে। সঠিক পাওয়ারের চশমা ব্যবহার করলে এ ধরনের মাথা ব্যথা ভালো হয়ে যায়। অনেক সময় চশমা না নিয়ে বা চোখের ত্রুটি সংশোধন না করে রোগীরা প্যারাসিটামল, প্রপানলল, এমিট্রিপটাইলিন, টলফেনামিক অ্যাসিড ইত্যাদি খেতে থাকেন। এই প্রচেষ্টায় রোগী সামায়িক আরাম পেলেও পরবর্তীতে আবার কষ্ট ফিরে আসে। তাছাড়া ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খেলে তার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে। তাই রোগ নির্ণয়ের জন্য সঠিক ডায়াগনসিস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

অনেক সময় ট্যারা চোখের জন্যও মাথা ব্যথা হতে পারে। অপারেশন করে ট্যারা চোখ ভালো করা সম্ভব। তখন মাথা ব্যথার সমাধান হতে পারে স্থায়ীভাবে। তাই মাথাব্যথা হলে একজন চক্ষু ডাক্তারের পরামর্শ নেয়া যেতে পারে। তবে বেশিরভাগ সময় অপুষ্টি, অনিদ্রা, বৈরি আবহাওয়া, অধিক চিন্তার কারণে চোখে যন্ত্রণা হতে পারে। আর এ কারণে মাথাব্যথাও ভোগ করতে হতে পারে। তাই চোখের ডাক্তারের কাছে গেলে অনেক সময় মাথাব্যথা থেকে মুক্তি মিলতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই