মেইন ম্যেনু

মানসিক চাপ কমাতে ফের সিগারেট ধরেছেন সালমান

নোবেলজয়ী জার্মান কথা সাহিত্যিক গুন্টার গ্রাস একবার এক সাক্ষাৎকারে মজা করে বলেছিলেন, ‘পৃথিবীতে সবচেয়ে সহজ কাজ হচ্ছে সিগারেট খাওয়া(ধূমপান) ছেড়ে দেয়া। জীবনে কতোবার ছেড়েছি’! গুন্টারগ্রাস এমন একটি কথা হাস্যরসাত্মকভাবে বললেও বলিউডের সুপারস্টার অভিনেতা সালমান খানের ক্ষেত্রে যেনো পুরোটাই সত্যি! ডাক্তারের পরামর্শে কয়েক বছর ধরে সিগারেট না খেলেও ফের ধূমপান শুরু করেছেন তিনি!

ডাক্তারের পরামর্শে বেশ ক’বছর ধরেই সিগারেট ফুঁকেন না সালমান খান। ফুঁসফুঁসে সামান্য সমস্যার কারণে ডাক্তার সালমানকে সিগারেট ফুঁকতে পুরোদমে নিষেধ করে ছিলেন। নিজের শরীরের মায়ায় কয়েক বছর ডাক্তারের এমন বাধ্যবাধকতা মেনেও চলেন সালমান। কিন্তু হঠাৎ করেই আবারও সিগারেট ফুঁকতে শুরু করে দিয়েছেন তিনি।

তার ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে ডাক্তারের নিষেধ অমান্য করে সিগারেট ফুঁকতে শুরু করেছেন সালমান। এমনকি কোনো ইভেন্ট কিংবা শুটিং স্পটেও তাকে সমানে সিগারেট ফুঁকতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। বর্তমানে সালমান আছেন তার আসন্ন ছবি ‘সুলতান’-এর শুটিংয়ে। আর সেখানেও তাকে একের পর এক সিগারেট ফুঁকতে দেখা গেছে।

মনে করা হচ্ছে ২০০২ সালের ঘটনায় ‘হিট এন্ড রান’ মামলা থেকে গেল বছরে নিষ্কৃতি পেয়েছিলেন সালমান খান। কিন্তু আদালত সালমানকে ওই মামলা থেকে খালাস দিলেও সম্প্রতি সরকার সেই তার খালাস নিয়ে রিট করে। ফের পুরনো মামলায় নতুন করে ঝামেলায় জড়িয়ে যাওয়ায় নাকি মানসিকভাবে কিছুটা চাপে আছেন সালমান। আর এইজন্যই ডাক্তারের পরামর্শ অমান্য করে সিগারেট ধরেছেন সালমান!






মন্তব্য চালু নেই