মেইন ম্যেনু

মানিকগঞ্জে ডাকাতির চেষ্টাকালে গুলিবিদ্ধসহ আটক ৪

মানিকগঞ্জের পুড়রা এলাকায় ডাকাতির চেষ্টাকালে ডাকাত-পুলিশ গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় গুলিবিদ্ধ দুইজনসহ চার ডাকাতকে আটক করেছে পুলিশ। গুলিবিদ্ধ এক ডাকাতের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

গুলিবিদ্ধ ডাকাতরা হলেন-ফরিদপুরের রায়পুর উপজেলার চারকোন গ্রামের সামাদ শেখের ছেলে রবি শেখ (৩৫) ও মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার সোনাকান্দা গ্রামের শের আলীর ছেলে ঈমান আলী (৫৮)। তাদের মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে ঈমান আলীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। পিয়ার আলী এবং লিয়াকত আলী নামে আরও দুই ডাকাতকে আটক করা হয়েছে। তবে তাদের ঠিকানা জানাতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে শহরের পুড়রা এলাকায় অর্পনা রানীর বাসায় ১০/১২ জনের একদল অস্ত্রধারী ডাকাত হানা দেয়। তারা বাসার কেসি গেট ভেঙে ভেতরে ঢুকলে বাড়ির লোকজন টের পেয়ে ডাক চিৎকার করতে থাকে। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশ ও স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ডাকাতরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ও ধাওয়া করে চার ডাকাতকে আটক করে পুলিশ।এ সময় পুলিশের সামনেই চার ডাকাতকে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। ডাকাত দলের বাকি সদস্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পুলিশ এ ঘটনায় কোনো আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করতে না পারলেও ডাকাতদের কাছ থেকে রাম দা, চাকু, চাপাতিসহ বেশ কয়েকটি অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসাইন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ডাকাতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হবে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্ততি নিচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই