মেইন ম্যেনু

মানুষের মতো কথা বলতে পারে এমন পাখির সন্ধান

পাখিরাও কি মানষের মতো কথা বলতে পারে? পাখিরা যে কথা বলতে পারে যারা টিয়া কিংবা ময়না পাখির কথা শুনেছেন তারা নির্দিধায় বলতে পারবে। এবার টিয়া বা ময়নার মতো কথা বলতে পারবে এমন একটি পাখির সন্ধান পেয়েছে অস্ট্রেলিয়ার এক দল গবেষক। খবর এএফপি।

খবরে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ায় ‘গল্পবাজ’ পাখি নামে বিশেষ পরিচিত এই পাখিটি মানুষের মতো করে কিছু কথা বলতে পারে। অস্ট্রেলিয়ার পিএলওএস জার্নালের পরিচালক গবেষণায় দেশটির প্রত্যন্ত অঞ্চলে ‘চেসটনাট ক্রাউনড ব্যবলার’ বা আধো-আধো ভাষায় কথা বলা পিঙ্গল বর্ণের সুশোভিত পাখির সন্ধান পেয়েছে। এ প্রজাতির পাখি আদিম মানুষের ভাষায় কথা বলে।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, প্রাথমিক আধো-আধো ভাষাই পর্যাক্রমে একটি পূর্ণাঙ্গ ভাষার রূপ নেবে। গবেষণায় দেখা গেছে, ওই পাখিরা কতিপয় ধ্বনি একত্রে উচ্চারণ করে তৈরি করে অর্থপূর্ণ শব্দ। আর তা দিয়ে একে অন্যের সঙ্গে ভাব বিনিমিয় করে। বিজ্ঞানীরা দৃষ্টান্ত দিয়ে বলেন, ওই পাখির ব্যবহৃত দুটো ধ্বনি ‘এ’ এবং ‘বি’ হলে ভাষার ক্ষেত্রে শব্দ হবে ‘এব (অই) যা ওই পাখিরা আকাশে উড়ার নির্দেশক হিসেবে ব্যবহার করে।

আবার খাবার খাওয়নোর জন্য মা-পাখি যে শব্দ ব্যবহার করে তা হল বিএবি (ইঅই)। বিজ্ঞানীরা পাখির ব্যবহৃত বিভিন্ন শব্দ ধারণ করে তা আবার ধ্বনিত করলে পাখি ভিন্ন শব্দের জন্য ভিন্ন প্রতিক্রিয়া করে। গবেষণার সহযোগী লেখক ড. সাইমন টাউনসেন্ড বলেন, মানবজাতি ছাড়া অর্থহীন কোনো উপাদানের সমন্বয় করে ভাবপ্রকাশের মাধ্যমে আবিষ্কার এটাই প্রথম। জুরিখ বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক গবেষক সাবরিনা এনডোসার বলেন, আমরা অনেকদিন ধরে জেনে আসছি পাখি তার স্বরতন্ত্র দিয়ে কিছু নির্দিষ্ট ধ্বনি তৈরি করে আর তার সমন্বয়ে তৈরি হয় গানের সুর। কিন্তু কণ্ঠস্বর বারবার পরিবর্তন করে যে শব্দ এ প্রজাতির পাখি করে তা সামগ্রিকভাবে একটি বার্তা প্রদান করে বলে দাবি করেছে ওই গবেষক দল।

গবেষকদের দাবি সঠিক হলে এই ‘গল্পবাজ’ পাখিটি হবে পৃথিবীর অন্যতম আশ্চর্যের আরো একটি জীবন্ত উদাহরণ।






মন্তব্য চালু নেই