মেইন ম্যেনু

মার্কিন আন্তর্জাতিক উৎসবে বাংলাদেশের ছবি

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল। এবার আমেরিকার সিয়াটল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দেখা যাবে ঢাকার ছবি। এই ছবিটি মুক্তির জন্য পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে তরুণ নির্মাতা বিজন এবং প্রযোজক হিসেবে আরিফুর রহমানকে। তবে এত কষ্ট করার পর সফলতার মুখ দেখতে যাচ্ছেন তারা। গুপী বাঘা প্রোডাকশনের প্রথম ছবি ‘মাটির প্রজার দেশে’ ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হতে যাচ্ছে

১৯শে মে সিয়াটলে শুরু হচ্ছে বিশ্বের বড় একটি চলচ্চিত্র উৎসবের আসর। উৎসবের ৪২তম এ আসরে অফিসিয়াল সিলেকশন হিসেবে প্রথমবারের মতো এ ছবিটি প্রদর্শন করা হবে। এ উপলক্ষে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি রেস্তরাঁয় এক সংবাদ হয়। সেখানে এ ছবির কলাকুশলীরা উপস্থিত হয়ে তাদের শুটিংসহ নানা স্মৃতির কথা বলেন।

ছবিটির পরিচালক বিজন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ায় ফিল্ম-টেলিভিশন অ্যান্ড থিয়েটার বিভাগে স্কলারশিপে পড়াশোনা করেছেন। বিশ্বের ১৮ জন শিক্ষার্থী প্রতি বছর এ সুযোগ পেয়ে থাকেন। বাংলাদেশ থেকে বিজনই প্রথম এ বিভাগে ফিল্ম বিষয়ে পড়ার জন্য সুযোগ পান।

‘মাটির প্রজার দেশে’ ছবিটি নিয়ে তিনি বলেন, আমরা আরও কিছু উৎসবে এ ছবিটির প্রিমিয়ার করার জন্য আমন্ত্রণ পেয়েছিলাম। তবে শেষে সিয়াটল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের জন্য ছবিটি জমা দিই। ১৯শে মে সিয়াটলে বাংলাদেশের একটি ছবি দেখানো হচ্ছে, সেটা আমাদেরই ছবি ‘মাটির প্রজার দেশে’। এজন্য খুবই আনন্দিত আমাদের টিম।

প্রত্যেকে খুব ভালো কাজ করেছে। একটু একটু করে টাকা জমিয়ে এ ছবিটি মুক্তি দেয়ার চেষ্টা করেছেন প্রযোজক। আর সেজন্য পাঁচ বছর সময় লেগেছে আমাদের। এতকিছুর পরও ছবিটি নিয়ে আমি বেশ আশাবাদী। ‘মাটির প্রজার দেশে’ ছবিটির ইংরেজি নাম ‘কিংডম অব ক্লে সাবজেক্টস’। ২৮ ও ২৯শে মে পরপর দুদিন উৎসবে ছবিটি দেখানো হবে।

এ ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, রোকেয়া প্রাচী, মাহমুদুর অনিন্দ্য, শেউলী আক্তার, চিন্ময়ী গুপ্তা, মনির আহমেদ সাকিল, ইকবাল হোসেন, রমিজ রাজু, আবদুল্লাহ রানা, কচি খন্দকার, মাহফুজা বেগম রুমা, প্রশান্ত ত্রিপুরা প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই