মেইন ম্যেনু

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ফিরিয়ে দিলেন এই ব্যক্তি!

জাতীয় নিরাপত্তা হিসেবে মাইকেল ফ্লিনের পদত্যাগের পর তার স্থলাভিষিক্ত করার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যাকে পছন্দ করেছিলেন সেই রবার্ট হারওয়ার্ডের কাছ থেকে সায় মেলেনি। ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে ট্রাম্পের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি। তবে কেন হাওয়ার্ড ট্রাম্পের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন তা নিয়ে দুই ধরনের বক্তব্য রয়েছে।

হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, অবসরপ্রাপ্ত ভাইস অ্যাডমিরাল রবার্ট হারওয়ার্ড পারিবারিক ও আর্থিক অঙ্গীকারকে কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন। আবার মার্কিন সংবাদমাধ্যমকে উদ্ধৃত করে বিবিসি বলছে, হারওয়ার্ডের রাজি না হওয়ার মূল কারণ তিনি তার নিজস্ব কর্মীদেরকে জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদে আনতে চেয়েছিলেন।

রুশ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সংযোগ থাকা নিয়ে শুরু হওয়া বিতর্কের জের ধরে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন সম্প্রতি পদত্যাগ করেন। ফ্লিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ওবামা আমলে রাশিয়ার ওপর আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা সরানোর বিষয়ে রুশ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে তিনি ট্রাম্পের দায়িত্বগ্রহণের আগেই আলোচনা করেছিলেন। ফ্লিন তা করে থাকলে তবে তা হবে আইনের লঙ্ঘন। কেননা আইন অনুযায়ী, বেসরকারি নাগরিকদের পররাষ্ট্র নীতিমালাসংক্রান্ত কাজে জড়িত হওয়া নিষিদ্ধ।

পদত্যাগপত্রে ফ্লিন বলেন, তিনি অসাবধানতাবশতঃ তৎকালীন নির্বাচিত ভাইস-প্রেসিডেন্টকে আংশিকভাবে রুশ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে তার কথোপকথন সম্পর্কে জানিয়েছিলেন। ফ্লিনের পদত্যাগের পর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা পদে অন্তর্বর্তীকালীন নিয়োগ দেওয়া হয় লেফটেন্যান্ট জেনারেল জোসেফ কিথ কেলোগকে।

এরপর কাকে ফ্লিনের স্থলাভিষিক্ত করা হচ্ছে তা নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়। আর সে তালিকায় এগিয়ে ছিলেন রবার্ট হারওয়ার্ড।






মন্তব্য চালু নেই