মেইন ম্যেনু

মালয়েশিয়ায় আবারও বাংলাদেশিসহ ৮৪ নাগরিক আটক

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীবিরোধী অভিযান জোরদার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার দেশটির উপ-প্রধানমন্ত্রী ড. আহমেদ জাহিদ হামিদি বিদেশি কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত ও অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণার পর এ অভিযান জোরদার করা হয়।

বাংলাদেশ থেকে তিন বছরে ১৫ লাখ কর্মী নিয়োগে সমঝোতা চুক্তির পরদিন এ ঘোষণা দেন ড. হামিদি। ঢাকা সফরে এসে আগের দিন বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলামের সঙ্গে কর্মী নিয়োগে এ চুক্তি সই করেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী রিচাড রায়ট।

ড. হামিদির ঘোষণার পরদিন শনিবার থেকে এ অভিযান শুরু করে পুলিশ। গত দুইদিনে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশের সহস্রাধিক নাগরিককে অবৈধভাবে দেশটিতে অবস্থানের অভিযোগে আটক করেছে পুলিশ।

দেশটির স্টার অনলাইন জানিয়েছে, সোমবার বুকতি মারতাজাম এলাকায় একটি শপিং মলে অভিযান চালিয়ে নারী ও শিশুসহ ৮৪ জনকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। আটক বিদেশিদের মধ্যে বাংলাদেশসহ ৯ দেশের নাগরিক রয়েছে।

পুলিশের উপ-পরিচালক পি সিলভা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, অভিযানে ৮৪৪ বিদেশি নাগরিকের কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। আটক ব্যক্তিদের কাছে মালয়েশিয়ায় বসবাসের বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

আটক বিদেশিদের ৭২ জন পুরুষ, ১০ জন নারী। এদের বয়স ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। দুই শিশুর বয়স ১ ও ৫ বছর বলে জানান পি সিলভা।






মন্তব্য চালু নেই