মেইন ম্যেনু

মাশরাফির কাঠগড়ায় শিশির

সিরিজের শেষ ও তৃতীয় ওয়ানডেতে টস নামক ভাগ্য পরীক্ষায় হেরে যান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। আর টসে জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ডের দলপতি জস বাটলার। ওই টসই কি ম্যাচের ফল নির্ধারণ করে দিয়েছিল? কিছুটা হলেও বোধ হয় টের পেয়েছিলেন মাশরাফি। বুধবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে ৪ উইকেটে হেরে গেছে বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে টাইগার অধিনায়ক কাঠগড়ায় আনলেন শিশিরকে।

পরে ব্যাট করলে সুবিধা পাওয়া যাবে। কিন্তু পরে বোলিংয়ে আসলে শিশিরের কারণে স্পিনাররা তাদের বোলিংয়ে টার্ন পাবেন না। হলো ঠিক তা-ই। সাকিব-নাসির-মোসাদ্দেকরা আদায় করে নিতে পারেননি সুবিধা। নাসির ও মোসাদ্দেক একটি করে উইকেট নিলেও সাকিব ছিলেন উইকেটশূন্য। অথচ এই সাকিবই কি না আগের দুই ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন।

অপরদিকে আগে বোলিংয়ে এসে ইংলিশ স্পিনার আদিল রশিদ হাত ঘুরিয়ে তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। ১০ ওভারে খরচ করেছেন ৪৩ রান। আরেক স্পিনার মঈন আলী একটি উইকেট লাভ করলেও ১০ ওভারে খরচ করছেন ৪২ রান। এই ব্যবধান তাহলে শিরিরের কারণে?

বাংলাদেশের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাশরাফির ভাষায়, ‘ম্যাচের শেষ দিকে অনেক শিশির ছিল। আমাদের স্পিনাররা বল টার্ন পায়নি। কিন্তু ইংল্যান্ড ভালো খেলেছে। আমরাও ভালো খেলেছি। কিছু তরুণ খেলোয়াড় জেগে উঠেছে। ইমরুল, তামিম ভালো খেলেছে। মুশফিক ফর্মে ফিরেছে।’






মন্তব্য চালু নেই