মেইন ম্যেনু

মাশরাফির নাম ভাঙিয়ে ব্যবসা !

মানুষ বিখ্যাত হওয়ার জন্য কত কিছুই তো করে। অনেক সময় আলোচনার জন্ম দিয়ে অনেক প্রতিষ্ঠানও গ্রাহকের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায়। এগুলো সঠিক পদ্ধতিতে হলে ঠিক আছে, কিন্তু কাজটি যদি বেখাপ্পা বা বেআইনি হয় তাহলে প্রশ্ন ওঠে সেই মানুষ অথবা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। ইতিহাস বলে এ জন্য অনেককে খেসারতও দিতে হয়েছে চড়া মূল্যে।

সম্প্রতি এসএমই লোন সার্ভিস নামের একটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে চাকরির নিয়োগপত্র দিয়েছে। পাঠক হয়তো এটুকু পড়েই চমকে উঠে ভাবছেন, প্রিয় অধিনায়কের হঠাৎ চাকরির দরকার হলো কেন? কিন্তু আপনাকে হলফ করে এটুকু বলতে পারি, নিয়োগপত্র পেয়ে আপনার চেয়ে অনেক বেশি চমকে গেছেন স্বয়ং মাশরাফি।

প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট কে টি আহমেদ। ডাক যোগে এই পত্রটি পেয়েছেন মাশরাফি। আর প্রতিষ্ঠানটির অফিশিয়াল প্যাডে ঠিকানা লেখা আছে, ২২ দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা ১০০০। আসলে ঘটনা হলো, মাশরাফিকে `সম্মানসূচক` চাকরির নিয়োগপত্র দিয়েছে এই প্রতিষ্ঠানটি। মাশরাফির কাছে ফ্রেমে বাঁধানো এই নিয়োগপত্র এসেছে আজ মঙ্গলবার বিকেলে। এ সময় তিনি মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম সংলগ্ন ইনডোরে অনুশীলন করছিলেন। এই নিয়োগপত্রটি এসেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ঠিকানায়।

মাশরাফির সঙ্গে কথা বলে প্রতিষ্ঠানটি যদি এই কাজ করত তাহলে হয়তো এত কথা হতো না। কিন্তু মাশরাফি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। এ প্রসঙ্গে মাশরাফি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এমন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আমার জড়ানোর প্রশ্নই আসে না। ফ্রেমে বাঁধানো এই নিয়োগপত্র পাওয়া সত্যিই আমার জন্য একটি হাস্যকর ব্যাপার। আসলে তারকাদের নাম ভাঙিয়ে যারা ব্যবসা করে, তাদের সম্পর্কে আমাদের সবারই সতর্ক থাকা উচিত।`






মন্তব্য চালু নেই