মেইন ম্যেনু

মায়াময় চোখের সাজ

সাজে আকর্ষণ বাড়াতে চোখে চাই মায়াময় আবেশ। চোখ জোড়াকে মনের মতো করে দেখাতে কাজলের ব্যবহার হয়ে আসছে যুগ যুগ ধরে। একসময় আগুনের উত্তাপে নিকষ কালো দাগ ফেলা হতো কাজলদানির গায়ে। একবার করে আঙুলের কোনায় তা ছুঁইয়ে আলতো করে লাগানো হতো চোখের কিনারে। সময় বদলেছে, চিকন কাজল পেনসিল দিয়েই হয়ে যাচ্ছে মনের মতো করে চোখের আর্ট। কাজল লাগানোর এই রীতির বদল হলেও কমেনি এর চাহিদা। যেকোনো বয়সেই এখনো এটি সাজের প্রিয় একটি অনুষঙ্গ।

এখন ফ্যাশন পুরো চোখ কাজল দিয়ে সাজানো। চোখের ওপরে এবং নিচের দিকে আগে কাজল লাগিয়ে দিন চিকোন অথবা মোটা করে। কেউ কেউ অবশ্য কাজলের পরিবর্তে লাইনারও ব্যবহার করেন। কেউ কেউ আবার চোখে কাজল লাগিয়ে হাত দিয়ে ঘষে (স্মাজ) দেন। কাজল থাকবে, কিন্তু আবছাভাবে। স্মোকি লুকের জন্য এভাবে কাজল লাগাতে পারেন। বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় চোখে মোটা করে কাজল দেওয়া। কেউ কেউ চোখের ওপরের অংশে দেন নীল, সবুজ রঙের পেনসিলের ছোঁয়া। তবে যে সাজই দিন না কেন চোখের ধরনটা আগে বুঝে নিতে হবে। ছোট চোখের ক্ষেত্রে নাকের দুই পাশে শুরুতে একটুই জায়গা ছেড়ে দিয়ে কাজল লাগান। চোখের বাইরের দিকে কাজলের রেখা ওপরের দিকে তুলে ছেড়ে দিন। চোখ দেখতে বড় লাগবে। অন্যদিকে চোখ বড় যাদের টানা করে লাগিয়ে নিলে বেশ লাগবে।

এই গরমে কাজল ছড়িয়ে গেলে

গরমের দিনে কাজল দিলেই একটু পর ছড়িয়ে যায়, এমন অভিযোগ অনেকের। সেজন্য-

– ফাউন্ডেশনের বেইসটি মুখের সঙ্গে চোখের নিচেও লগিয়ে নিন।

– একটু পাউডার চোখের নিচের অংশটায় ছড়িয়ে দিন। এবার কাজল লাগান।

– কাজল লাগিয়ে নিজের হাতে একটু ঘষে দিতে পারেন। তাহলে আর ছড়িয়ে পড়বে না।






মন্তব্য চালু নেই