মেইন ম্যেনু

মায়ের ইচ্ছে পূরণে রাজকুমারের সাজে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে!

স্বপ্নের রাজকুমারের মতো নিজের ছেলের বিয়ের আয়োজনটা করতে চেয়েছেন রাজকীয়ভাবে। তাই ঘোড়া, গরুর গাড়ি, প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস সব কিছুর আয়োজন থাকা সত্ত্বেও মায়ের ইচ্ছে পূরণেই হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করতে গেলেন মাগুরার এক যুবক।

ঢাকায় গণপূর্ত বিভাগের প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদার মিজানুর রহমান মিজান (৩৬) মাগুরা জেলার পৌর এলাকার কাশীনাথপুর গ্রামের আমির হোসেন ও জরিনা বেগমের ছেলে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে দুই শতাধিক বরযাত্রী নিয়ে নিজ বাড়ি থেকে বিশাল আকৃতির একটি হাতির পিঠে চড়ে বরবেশে যাত্রা করেন। এই বর্ণাঢ্য বরযাত্রা দেখতে রাস্তার দুই পাশে শত শত নারী-পুরুষ ভিড় করে।

ব্যান্ড পার্টির সুরের তালে তালে এভাবেই প্রায় চার কিলোমিটার পথ দেন মিজান। মাগুরা-ঝিনাইদহ মহাসড়ক হয়ে বিকেলে শহরের পুলিশ লাইনের সামনের মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারে পৌঁছান। সেখানে সন্ধ্যায় পৌর এলাকার কুকনা গ্রামের হাফিজুর রহমানের মেয়ে রুনা লাইলার (২২) সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। বিয়ের কাবিন করা হয়েছে সাড়ে তিন লাখ টাকা। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে নববধূকে নিয়ে বাড়ি ফিরে নাচ-গানের আসরে যোগ দেন মিজান।

বরের বাড়িকে ঘিরে গোটা এলাকায় সপ্তাহ ধরে দৃষ্টিনন্দন আলোকসজ্জা করা হয়। এই আলোকসজ্জাও দেখার মতো। তাই অন্য গ্রামের মানুষরাও এ গ্রামে ভিড় জমিয়েছে।

মিজান জানান, তাঁর বৃদ্ধা মা জরিনা বেগমের ইচ্ছে পূরণ করতে এ ধরনের আয়োজন করা হয়েছে। আগামী ৯ জানুয়ারি মাগুরা মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারে বৌভাত অনুষ্ঠানে পাঁচ শতাধিক অতিথি আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই