মেইন ম্যেনু

মা দিবসে মাকে স্মরণ করে ডিসি কাঁদলেন, কাঁদালেন…

বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষে আয়োজন করা হয়েছে এক সভা। ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত হয়েছেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। চলছে মা দিবস আর মাকে নিয়ে নানা আলোচনা। এক পর্যায়ে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য শুরু করেন জেলা প্রশাসক মাহবুব আলম তালুকদার। আলোচনা সভায় উপস্থিত থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদসহ মা দিবসের শুভেচ্ছা জানান।

এরপর মূল বক্তব্যে মাকে নিয়ে কথা বলা শুরু করেন। মরহুম মার স্মৃতি তাকে হঠাৎ পাল্টে দেয়। মাকে নিয়ে বিখ্যাতসব গানের প্রসঙ্গে কথা বলেন। মায়ের একধার দুধের দাম/ কাটিয়া গায়ের চাম/ পাপোশ বানালেও ঋণের শোধ হবে না….গানটিতে মায়ের সম্মানের বিষয়টি মনে করেন।

এরপর বলেন, ‘যখনই আমার মায়ের কথা মনে পড়ে, তখনই মাকে নিয়ে গাওয়া জেমসের অসাধারণ সেই গানটিই মনে পড়ে-

দশমাস দশদিন ধরে গর্ভে ধারণ
কষ্টের তীব্রতায় করেছে আমায় লালন,
হঠাৎ কোথায় না বলে হারিয়ে গেল
জন্মান্তরের বাঁধন কোথা হারালো।
সবাই বলে ওই আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দূর নক্ষত্র মাঝে।

রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা।
ওরে তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারি না।….

গানের কথাগুলো বলতে বলতেই শিশুর মতো কেঁদে ফেললেন ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক মাহবুব আলম তালুকদার। অনেকদিন আগে মারা গেছেন তার মা। মাকে স্মরণ করে এভাবে কান্নায় ভেঙে পড়ায় উপস্থিত অতিথিদেরও চোখে পানি জমে যায়। কেউ কারো দিকে তাকাতে পারছিলেন না। সবাই সবার মাকে মনে পড়ে নীরবে চোখের পানি ফেলেন। এভাবে পিনপতন নীরবতায় কেটে গেল বেশ খানিকক্ষণ।

অবশেষে সবাইকে কাঁদিয়ে মা দিবসের অন্য প্রসঙ্গ নিয়ে আবারো বক্তব্য শুরু করলেন জেলা প্রশাসক।

ঝিনাইদহ মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নিলুফার রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবু ইউসুফ মো. রেজাউর রহমান, ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান ও উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তহুরা খাতুন।

এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- সমাজসেবী হোসনে আরা খন্দকার, ফজর আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষিকা নাদিরা আক্তার, নারী ফেডারেশনের সভানেত্রী নাসরিন ইসালাম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই