মেইন ম্যেনু

মিথ্যে বলে যে শিশুরা, তাদের স্মরণশক্তি সবচে ভালো!

ভালোভাবে মিথ্যা বলতে পারে এমন শিশুদের স্মরণশক্তি সবচেয়ে ভালো বলে দাবি করেছেন মনোবিজ্ঞান গবেষকরা। কিছু ৬ অার ৭ বছরের শিশুদের একটি খুব সাধারণ খেলায় কারসাজি করার সুয়োগ দিয়ে তা নিয়ে মিথ্যা বলার অনুমতি দেন গবেষকরা। পরে দেখা গেল যেসব শিশু খুব ভালো মিথ্যাবাদী, তারা স্মরণশক্তির পরীক্ষায় ভালো করেছে।

নর্থ ফ্লোরিডা, শেফিল্ড এবং স্টারলিং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা তাদের গবেষণার জন্যে চারটি ব্রিটিশ স্কুল থেকে ১১৪ জন শিশুকে বাছাই করেছিলেন। প্রশ্নোত্তরের একটি খেলায় লুকানো ক্যামেরায় তাঁরা খুব সহজেই ঐসব শিশুকে চিহ্নিত করেন যারা দেখে প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিল, যদিও তাদের বলা হয়েছিল না দেখার জন্যে।

আশ্চর্যজনক একটি তথ্য হলো, মাত্র এক-চতুর্থাংশ শিশু উত্তর দেখার প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছিল। এরপর আরো প্রশ্ন করে গবেষকরা জানতে পারেন কে বেশী মিথ্যাবাদী, আর কে কম মিথ্যাবাদী।

তাঁরা বিশেষভাবে দেখতে চেয়েছিলেন, কারা ভালোভাবে মিথ্যা ঢাকতে সমর্থ। আর যারা ভালো মিথ্যাবাদী, শব্দের ব্যাপারে তাদের ভালো স্মরণশক্তি রয়েছে, যদিও এমন কোন প্রমান পাওয়া যায়নি যে ছবি স্মরণ করার ব্যাপারেও তারা একই রকম দক্ষ।

গবেষকরা বলছেন, এটা এ কারণে যে মিথ্যা বলতে প্রচুর কথা মনে রাখতে হয়, ছবি খুব একটা মনে না রাখলেও চলে। এখন গবেষকরা দেখতে চান, শিশুরা ঠিক কীভাবে প্রথমবারের মতো মিথ্যা বলা শেখে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা






মন্তব্য চালু নেই