মেইন ম্যেনু

মিনায় কুলাউড়ার একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু

সৌদি আরবের মিনায় শয়তানকে প্রতীকী পাথর নিক্ষেপের সময় পদদলিত হয়ে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

গতকাল রবিবার সৌদি সরকার কর্তৃক ঘোষিত নিহতদের যে তালিকা দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে জেলার কুলাউড়ারই তিনজনের নাম রয়েছে।

নিহতরা হলেন-কুলাউড়া পৌরসভার উত্তরবাজারের বাসিন্দা মহিব উদ্দিন আহমদ (৭০), তার স্ত্রী রাবিয়া বেগম (৬৫)ও ছেলে জালাল উদ্দিন মনি(৩৮) ।

মনির ঘনিষ্ট বন্ধু রাজু আহমদসহ পরিবারের লোকজন জানান, জালাল উদ্দিন মনি আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) এর একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছিলেন। কুলাউড়া নবীনচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় তথা জেলার মধ্যে একজন মেধাবী ছাত্র হিসেবে মনি সুপরিচিত ছিলেন।

তিনি আরও জানান, সোমবার বিভিন্ন গনমাধ্যমে তাদের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে । তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে পাসপোর্ট নাম্বার ও ছবিসহ সৌদিআরবস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসকে অবহিত করা হয়েছিল। রবিবার পর্যন্ত দূতাবাস থেকে পরিবারকে কোন কিছু জানানো হয়নি।এক ভাই ও এক বোন ছাড়া পরিবারের সকলের মৃত্যুর ঘটনায় আমরা শোকাহত। দুর্ঘটনার পর থেকে তারা নিখোঁজ ছিলেন। তখন থেকেই পরিবারের লোকজন উদ্বিগ্ন ছিলেন।

এদিকে গত ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার হজ পালন শেষে সৌদি আরবে হজ মহল্লায় মৃত্যুবরণ করেছেন সোনা মিয়া (৭০) নামে এক হাজি। তার বাড়ি কুলাউড়া উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের চকের গ্রামে। ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিক আহমদ মৃত্যুর সংবাদটি নিশ্চিত করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই