মেইন ম্যেনু

মিলনের সময় যৌনকর্মীর যৌনিতে বৃদ্ধের পুরুষাঙ্গ আটকে গেল, অতপর হলো কান্ড…

যৌনকর্মীর সঙ্গে সঙ্গমের সময় হঠাৎ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন এক বৃদ্ধ।সমস্যা সেখানে নয়, সমস্যা হলো যৌনকর্মীর যৌনিতে বৃদ্ধের পুরুষাঙ্গ আটকে যাওয়া।শত চেষ্টা করেও যৌনকর্মী নিজেকে ছাড়াতে না পেরে চিৎকার করতে থাকেন। শেষ পর্যন্ত আশপাশের লোকদের সহযোগিতার তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আলাদা করা হয়।ঘটনাটি চীনে।

জানা যায়, চাকরি থেকে অবসর নিয়ে জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করতে চেয়েছিলেন চীনের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধ। এক রাতে তাই যৌনকর্মীর সঙ্গে নিজের আবাসনে শরীরী খেলায় মেতেছিলেন। কিন্তু চরম অনুভূতির সময় হঠাৎ তাঁর হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে পড়ে। সঙ্গমরত অবস্থায় মারা যান বৃদ্ধ। কিন্তু তাঁর পুরুষাঙ্গ শিথিল না হওয়ায় যৌনসঙ্গীর যোনির ভিতরে আটকে যায়।

গ্রাহকের আচমকা মৃত্যুতে স্বভাবতই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই যৌনকর্মী। সাহায্য চেয়ে ফোন করলে বাড়িতে ছুটে আসেন জরুরি চিকিত্‍সা বিভাগের কর্মীরা। কিন্তু চেষ্টা করেও যোনির বন্ধন থেকে মুক্ত করা যায়নি লিঙ্গ। বাধ্য হয়ে ঐ অবস্থাতেই অ্যাম্বুল্যান্সে চাপিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় যুগলকে। স্ট্রেচার থেকে ট্রলি, নীল চাদরে ঢাকা জীবিত ও মৃতের অদ্ভুত জুটিকে তত্‍পরতার সঙ্গে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিত্‍সকদের চেষ্টায় অবশেষে মৃতের পুরুষাঙ্গ ওই যৌনকর্মীর যোনি থেকে উদ্ধার করা হয়।

চিকিত্‍সকরা জানিয়েছেন, যৌন মিলনের জেরে অর্গ্যাজম-এর ফলে যোনির ভিতরের পেশিগুলি কুঁচকে যায়। এর ফলে যোনিদ্বারে প্রবেশ করা পুরুষাঙ্গের ওপর অনেক সময় তা চেপে বসে। সাধারণত কুকুর এবং অন্য পশুদের মধ্যে এই ঘটনা ঘটলেও মানুষের ক্ষেত্রে এমন ঘটনা বিরল। এই শারীরিক জটিলতাকে চিকিত্‍সার ভাষায় ‘পেনিস ক্যাপটিভাস’ বলা হয়। তবে সাধারণত এমন পরিস্থিতি কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী হয়।

চিনের ওই বৃদ্ধের ক্ষেত্রে অবশ্য জটিল শারীরিক পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী হয়েছিল। নিজেকে যৌনসঙ্গীর থেকে বিচ্ছিন্ন করার আগেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়।

এদিকে হাসপাতালে মৃতের দেহের উপর সেঁটে থাকা যৌনকর্মীর ভিডিয়োটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। চিনের ভিডিয়ো শেয়ারিং সাইট মিয়াওপাই-এর মাধ্যমে প্রথম দফায় ১,৩৭,০০০ জন ভিডিয়োটি দেখেছেন বলে জানা গিয়েছে। তবে চিনের ঠিক কোন অংশে এই ঘটনা ঘটেছে তা জানা যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই