মেইন ম্যেনু

মিলাদ দিয়ে মেয়ের নাম রাখবেন রেলমন্ত্রী

ফুটফুটে কন্যা-সন্তানের বাবা হয়ে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করেছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। এখনো সন্তানের নাম রাখেননি তিনি। ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী মিলাদ মাহফিল করে মেয়ের নাম রাখা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

আজ শনিবার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে কন্যা-সন্তানের জন্ম দেন রেলমন্ত্রীর স্ত্রী হনুফা আক্তার। মা ও সন্তান দুজনেই সুস্থ আছেন।

রেলমন্ত্রী বলেন, এখনো মেয়ের নাম রাখা হয়নি। মিলাদ মাহফিল করে মেয়ের নাম রাখা হবে। তখন আপনাদের জানাবো।

স্কয়ার হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সিজারের মাধ্যমে হনুফা আক্তার কন্যা-সন্তান প্রসব করেন। অপারেশনটি করেন ডাক্তার নার্গিস ফাতেমা। নবজাতকের ওজন ২.৫ কেজি বলে জানা গেছে।

কন্যা-সন্তানের বাবা হয়ে আল্লাহর কাছে শোকরিয়া আদায় করেন রেলমন্ত্রী। সন্তানকে কোলে নিয়ে দারুণ খুশি বলেও জানিয়েছেন তার পিএস। ৬৯ বছর বয়সে কন্যা-সন্তানের বাবা হওয়া রেলমন্ত্রী সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

গতকাল বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও করে খবর প্রকাশ হয়, বাবা হতে যাচ্ছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক।
গত বুধবার রাতে রেলমন্ত্রীর স্ত্রী হনুফা আক্তারকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জীবনের সিংহভাগ সময় একাকি কাটিয়ে দেয়া রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ২০১৪ সালের ৩১ অক্টোবর কুমিল্লার মেয়ে হনুফা আক্তারকে বিয়ে করেন। বছরের অন্যতম আলোচিত বিয়ে ছিল এটি।

বরযাত্রায় ছিলেন ৬ মন্ত্রী, এমপিসহ ৭০০ বরযাত্রীর বিশাল গাড়িবহর। পরবর্তীতে ঢাকায় সম্পন্ন হয় বিবাহোত্তর সংবর্ধনা।

এদিকে আগামী ৩১ মে মন্ত্রীর ৬৯তম জন্মদিন। এবারের জন্মদিনটা তার জন্য হয়ে উঠতে পারে একেবারেই অন্যরকম। প্রিয় সন্তানকে কোলে নিয়ে হয়তো জন্মদিনের শুভেচ্ছা গ্রহণ করবেন তিনি।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই