মেইন ম্যেনু

মুছে ফেলতে হবে রানআউট সিনেমার ‘১৮+’

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বয়সভিত্তিক সিনেমা তৈরি হলেও দেশে এমনটি হয়নি কখনই। তবে বহুল আলোচিত চলচ্চিত্র সিনেমা রানআউট-এর পোস্টারে ১৮+ উল্লেখ করে প্রচারণা চালানো হয়। যেসব দেশে বয়সভিত্তিক চলচ্চিত্র তৈরি হয় সেসব স্থানে শুধু প্রাপ্তবয়স্করা দেখতে পারবেন এমন সিনেমার ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করার নিয়ম রয়েছে।

যেহেতু ঢাকাই চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে এমন কোনো বিষয় নেই তাই রানআউট পোস্টারে ১৮+ লেখা দেখে অনেকেই এর সমালোচনা করেন। মিডিয়াতেও এ নিয়ে সংবাদ পরিবেশন হয়। অবশেষে বাংলাদেশ সেন্সর বোর্ড বিষয়টি আমলে নেন। ছবিটি মুক্তি কয়েক ঘণ্টা আগে এর পোস্টার থেকে ১৮+ বাদ দেওয়ার নির্দেশ দেন সেন্সর বোর্ড।

শুক্রবার ১৬ অক্টোবর সজল-মৌসুমি নাগ-রুমানা স্বর্ণা অভিনীত সিনেমা রানআউট রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ছবিটির মুক্তিকে সামনে রেখে এর প্রচারণায় সাঁটানো পোস্টার থেকে ১৮+ মুছে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে সেন্সর বোর্ড। অন্যথায় এ সিনেমার পরিচালক, প্রযোজক ও প্রদর্শকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথাও বলা হয়েছে।

সেন্সর বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে নির্দিষ্ট কোনো গ্রেড বা ক্যাটাগরি নেই। তাই ১৮+ কিংবা অন্য কোন বিশেষ প্রতীক ব্যবহারের মাধ্যমে চলচ্চিত্রকে পরিচয় করিয়ে দেয়ার সুযোগ নেই।

সূত্রটি বলেন, ‘চলচ্চিত্রটির সকল পোস্টার থেকে ১৮+ মুছে ফেলতে হবে। তা না হলে প্রচলিত আইন ও সেন্সর বোর্ডের নিয়ম অনুসারে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’






মন্তব্য চালু নেই