মেইন ম্যেনু

মুটিয়ে যাওয়া থেকে হতে পারে ক্যান্সার

ওবেসিটি বা মুটিয়ে যাওয়া- এ শব্দটা যেন আধুনিক জীবনে এক মারাত্মক অভিশাপ। সম্প্রতি ক্যান্সার রিসার্চ ইউকে জানায়, যুক্তরাজ্যে গর্ভাশয়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত নারীদের সংখ্যা আশংকাজনক হারে বাড়ার পেছনে কারণ হতে পারে বাড়তে থাকা মুটিয়ে পড়া মানুষের সংখ্যা। এক জরিপে সংস্থাটি দেখায়, যেখানে ১৯৯০ এর দশকে প্রতি এক লাখ নারীতে ১৯ জনের মত এ ক্যান্সারে আক্রান্ত হত, সেখানে ২০১৩ সালে এ সংখ্যা প্রতি লাখে বেড়ে দাড়িয়েছে ২৯।

গবেষকেরা জানান, ঠিক কীভাবে অতিরিক্ত ওজন ক্যান্সারের সাথে যুক্ত তা স্পষ্ট না হলেও অতিরিক্ত চর্বিও কারণে সৃষ্ট হরমোন এর পেছনে দায়ী হতে পারে। প্রতি বছর যুক্তরাজ্যে প্রায় ৯,০০০ নারী গর্ভাশয়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত হন, যাদের মধ্যে প্রায় ২,০০০ জন মারা পড়েন রোগটিতে। যদিও বিগত ২০ বছরে উন্নত চিকিৎসার কারণে রোগটিতে বাঁচার হার অনেকটুকুই বেড়েছে, তবুও এত বেশি নারী কেন এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে তা জানার ওপর জোর দেন গবেষকরা।

ক্যান্সার রিসার্চ ইউকে এর অধ্যাপক জোনাথান লেডারম্যান জানান, রোগের পেছনের সবগুলো কারণ জানা না গেলেও অন্তত এ ব্যাপারে তারা নিশ্চিত যে, এক তৃতীয়াংশ রোগীর বেলাতে কারণটা হল অতিরিক্ত ওজন। সেই সাথে ব্যায়ামের অভাব, বয়স আর জিনগত কারণেও হয় রোগটি। এ রোগে আক্রান্ত ৫৬ বছর বয়সী এক নারী জানান, তিনি রোগটা ধরা পড়ার পর নিজের খাবার আর দৈনন্দিন অভ্যাস পাল্টে ফেলেছেন। পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ডের প্রধান পুষ্টিবিদ ড. এলিসন টেডস্টোন জানান, যেহেতু অতিরিক্ত ওজন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়, তাই খাবারের তালিকায় ক্যালরি, চিনি আর চর্বিও মাত্রা কম রাখা প্রয়োজন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই