মেইন ম্যেনু

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো যাত্রীদের ঢল

নাসরিন আক্তার, মুন্সীগঞ্জ থেকে : দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের চব্বিশ জেলার মানুষ ছুটছেন মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাট দিয়ে। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের লাখ লাখ মানুষ নারীর টানে বাড়ি ফেরায় শিমুলিয়া ঘাটে এখন যাত্রীর ঢল। কে কার আগে শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দির নৌপথের পদ্মা পাড়ি দেবেন-এ নিয়ে সেখানে এখন রীতিমত প্রতিযোগিতা চলছে। কেউ লঞ্চে, সিবোটে, ইঞ্জিন চালিত নৌকায় আবার কেউ কেউ ফেরি করে পদ্মা পাড়ি দিয়ে বাড়িমুখী হচ্ছেন। স্রোতের মতো ছুটছেন তারা।

এদিকে, প্রশাসনের ব্যাপক তৎপরতা লক্ষ্য করা গেছে। গতকাল সোমবার মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া কাওড়াকান্দি-নৌরুটের শিমুলিয়া ঘাটে গিয়ে এ চিত্র দেখা যায়।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসির) ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) আব্দুল আলীম জানান, নদীতে স্রোতের প্রচন্ড বেশি থাকায় কারণে ফেরিগুলো গন্তব্যে পৌঁছাতে নির্দিষ্ট সময়ের থেকে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট সময় বেশি লাগছে। প্রায় ১৯ টি ফেরি দিয়ে সকাল থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত প্রায় হাজার খানেক গাড়ি পাড় করা হয়েছে।

এছাড়া ও বিভিন্ন নৌযানে যাত্রীদের উপস্থিতি ছিল ব্যাপক। অতিরিক্ত যাত্রী উঠানোর বিষয়ে বিআইডব্লিউটির সহকারী পরিচালক শাহাদাত হোসেন বলেন, কি করবো? অতিরিক্ত যাত্রী না নেওয়ার নির্দেশনা থাকলেও যাত্রীরা কোন কথা শুনছেন না।

মাওয়া ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মোশারফ হোসেন জানান, ঈদে যাত্রীদের নিরাপত্তায় ঘাটে জেলা পুলিশের ৫০০ সদস্য নিয়োজিত রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই