মেইন ম্যেনু

মুম্বাই হাইকোর্টের রায়ে রাতে আযান ও ভজন নিষিদ্ধ!

মসজিদ এবং মন্দিরের সৃষ্টকারী উচ্চ শব্দ বন্ধ করতে গত বছর সন্তোষ পাচলাগ নামের ভারতের বোম্বের এক বাসিন্দা আদালতে একটি পিটিশন দায়ের করেন। এরপর আদালত তার সিদ্ধান্তে জনবহুল এলাকাতে রাত ১০ টা থেকে সকাল ছয় টা পর্যন্ত উচ্চ শব্দ করার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। পিটিশন করার সময় ৪৯ টি মসজিদের মধ্যে ৪৫ টি মসজিদই উচ্চ শব্দ করতো।
ওই এলাকার পুলিশের ডেপুটি কমিশনার শাহজি উম্যাপ মুসলিম একতা ফাউন্ডেশনের সদস্যদের নিয়ে সোমবার একটি আলোচনার আয়োজন করেন। সেখানে মুসলিম ধর্মালম্বী সদস্যরা আদালতের ঘোষণায় একাত্মতা ঘোষণা করেন।
অনুমতিবিহীনভাবে মসজিদ এবং মন্দির নির্মান করায় পাঁচটি মসজিদ এবং দুটি মন্দিরের মাইক নামিয়ে দিয়েছে পুলিশ।
তবে উম্যাপ জানিয়েছেন, মন্দিরগুলো তাদের বিশেষ অনুষ্ঠানের সময় অনুমতি সাপেক্ষে ১২টা পর্যন্ত মাইক ব্যবহার করতে পারবে।
শব্দ দূষণ বন্ধে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের এক আদেশের ভিত্তিতে এ আদেশ দেয়া হলো। এ ঘোষণায় দিউয়ালির মত অনুষ্ঠানে শব্দ করা আতশবাজি ফাটানোও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
ডিভিশনের প্রধান বিচারপতি এ সময়ে শব্দের মাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছেন ৭৫ ডেসিবেল।
পুলিশ মনে করছে এ তাদের এ পদক্ষেপের ফলে আজান ও ভজনের কারণে যারা দেরিতে ঘুমোতে যেতে বাধ্য হতো তাদের মুক্তি দিবে। এ পদক্ষেপ শব্দ দূষণ থেকে এলাকাবাসীকে অনেকটাই মুক্তি দিবে বলে আশা করছেন তারা।






মন্তব্য চালু নেই