মেইন ম্যেনু

মুসলমানদের পক্ষে কথা বলায় চরম অপমানিত হতে হচ্ছে প্রিয়াঙ্কাকে!

বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ট্যুইটারে নিজের একটি মতামত পোস্ট করেছেন। আর তাতেই তাকে চরম অপমানিত হতে হচ্ছে। তিনি তো এমন কিছু করেন নি শুধু মাত্র নিজের মতামতই তো দিয়েছিলেন। আর তাতেই এমন অপমানিত হচ্ছে তাকে!

অভিনেত্রী বলে কি তাদের কোনো মতামত নেই? নাকি মানবিকতা নেই তাদের? মুসলিম উদ্বাস্তুদের আমেরিকা থেকে তাড়িয়ে দেয়া সংক্রান্ত ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি মন্তব্যকে ঘিরে।

সম্প্রতি মুখ খুলেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। ট্যুইটারে তিনি লিখেছিলেন, ‘এরকম ভাবে কেউ কখনো কারো উপরে কোনো নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দিতে পারেন না। সব মানুষকে এরকম নেতিবাচক ভাবে এক করে দেয়াটা খুবই আদিম একটা ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

এই সামান্য কথাতেই লিঙ্গ-বৈষম্যের খোঁচা খেতে হল নায়িকাকে। আদেশ গুন্ডেচা নামে এক ব্যক্তি প্রিয়াঙ্কাকে রি-ট্যুইট করেন, ‘প্রিয়াঙ্কা, রাজনীতিটা তো আপনার জায়গা নয়! আপাতত অভিনেত্রী হিসেবেই থাকুন না, যেমনটা রয়েছেন!’ ট্যুইটারে এমনই অপমান হতে হল বলিউড এবং হলিউড রাজ্যে দাপিয়ে বেড়ানো এই অভিনেত্রীকে।

যদিও আদেশকে উত্তর দিতে ছাড়েনি প্রিয়াঙ্কা। সৌজন্য এবং আভিজাত্য বজায় রেখেই উত্তর দিয়েছেন আদেশকে। লিখেছেন, “নিশ্চয়ই আদেশ… একদম ঠিক বলেছেন… অভিনেত্রীরা কেন মানবিকতা নিয়ে কথা বলবে!”

তবে এটা প্রথম বার নয়। এর আগেও ট্যুইটারে বলিউড নায়িকাদের নানাভাবে অপমান করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই