মেইন ম্যেনু

মুসলমান সাংবাদিকের প্রশ্নে ক্ষুব্ধ সুচি

মিয়ানমারের সংখ্যালঘু মুসলমানদের নিপীড়নের বিষয়ে প্রশ্ন করায় নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী এবং গণতন্ত্রপন্হী নেত্রী অং সান সুচি বিবিসির এক মুসলমানকে সাংবাদিককে কটুক্তি করেছেন। শুক্রবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্যা টেলিগ্রাফ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।বিবিসি টুডের উপস্থাপক পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাংবাদিক মিশাল হুসেন সম্প্রতি সুচির একটি সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন। পিটার পোফাম নামে এক লেখক তার সদ্য প্রকাশিত ‘দ্য লেডি অ্যান্ড দ্য জেনারেলস : অং সান সুচি অ্যান্ড বার্মা’স্ট্র্যাগাল ফর ফ্রিডম’বইটিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সাক্ষাৎকারে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো বৌদ্ধদের নির্যাতন নিয়ে প্রশ্ন করেন মিশাল। তিনি রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো গণহত্যার ব্যাপারে নিন্দা জানানোর আহ্বান জানালে সুচি অপারগতা প্রকাশ করেন।সুচি বলেন, ‘আমি মনে করি অনেক বৌদ্ধও বিভিন্ন কারণে দেশত্যাগ করেছে। এটা আসলে দীর্ঘদিনের স্বৈরশাসনের ফল।’এসময় সুচিকে এই নির্যাতনের ঘটনায় নিন্দা জানানোর আহ্বান জানান মিশাল। এ পর্যায়ে সুচি তার মেজাজ হারান এবং তাকে বিড়বিড় করে ক্রোধের সঙ্গে বলতে শোনা যায়, ‘একজন মুসলিম আমার সাক্ষাৎকার নেবে এটা আমাকে কেউ বলেনি।’

প্রসঙ্গত, গনতন্ত্রপন্থী বলে আখ্যায়িত করলেও সুচি তার দেশে রোহিঙ্গাদের ওপর সরকারি বাহিনীর সহযোগিতায় চরমপন্থী বৌদ্ধভিক্ষুদের চালানো অমানুষিক নির্যাতনের বিরুদ্ধে কখনো একটি শব্দও উচ্চারণ করেননি। এমনকি জাতীয় নির্বাচনের আগে সুকৌশলে তিনি রোহিঙ্গা ইস্যুটি এড়িয়ে গেছেন। ধারণা করা হয়, মূলত সংখ্যাগুরু বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকজনের বিরাগভাজন হতে চান না বলেই সুচি সবসময় রোহিঙ্গা ইস্যুটি এড়িয়ে গেছেন।






মন্তব্য চালু নেই