মেইন ম্যেনু

‘মুসলিমদের সঙ্গে থাকতে না পারলে ভারত ছেড়ে চলে যান’

বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী প্রাচিকে ভারত ছেড়ে সাগরে কিংবা অন্য কোথাও বসবাস করার পরামর্শ দিয়েছেন ‘অল ইন্ডিয়া মজলিশ-ই ইত্তেহাদুল মুসলেমিন’ নেতা শাদাব চৌহান।

সাধ্বী প্রাচি সম্প্রতি বিতর্কিত মন্তব্য করে বলেন, ‘আমরা কংগ্রেস মুক্ত ভারত তৈরি করেছি। এবার মুসলিম মুক্ত ভারত তৈরি করতে হবে।’ এই লক্ষ্যে কাজ চলছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। খবর প্যারিস টুডে।

সাধ্বী প্রাচির মন্তব্যের জবাবে শাদাব চৌহান বলেছেন, “সাধ্বী প্রাচি কান খুলে শুনে রাখুন, যেদিন মুসলিম মুক্ত ভারত হয়ে যাবে সেদিন মানব মুক্ত ভারত হয়ে যাবে। আমাদের দেশের উন্নতির বুনিয়াদ হল মুসলিম।”

তিনি আরো বলেন, “যদি সাধ্বী প্রাচি মুসলিম মুক্ত ভারত চান তাহলে তিনি ভারতকে ধ্বংস করার স্বপ্ন দেখছেন। ভারতের অস্তিত্ব ততক্ষণ কায়েম আছে, যতক্ষণ ভারতের ভেতরে মুসলিম আছে। যেদিন ভারত থেকে মুসলিম শেষ হয়ে যাবে সেদিন ভারতের অস্তিত্বও শেষ হয়ে যাবে। কারণ, স্বাধীন ভারতের জন্য ওলামায়ে-কেরাম নিজেদের জীবন কুরবানি দিয়েছিলেন। যদি কেউ মুসলিমদের সঙ্গে থাকতে না পারে তাহলে এই দেশ ছেড়ে সাগরে অথবা অন্য কোথাও বসতি স্থাপন করতে পারেন। ভারতের এ ধরণের লোকের কোনো প্রয়োজন নেই।”

বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী প্রাচির আগে অবশ্য ‘হিন্দু মহাসভা’র পক্ষ থেকেও ‘ইসলাম মুক্ত ভারত’ অভিযান চালানোর কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়। গত বছর ২২ জুন লক্ষনৌতে সংগঠনটির পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত এক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এ সময় বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নির্বাহী সভাপতি কমলেশ তিওয়ারি ইসলামী মৌলবাদীদের হাত থেকে রক্ষা পেতে হিন্দুদের একটি করে তলোয়ার দেয়ার কথাও ঘোষণা করেন। কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের উদ্দেশ্যে ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ ঘোষণা করার দাবিও জানানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই