মেইন ম্যেনু

মুস্তাফিজের দুটি ভয়

আইপিএলে খেলতে যাওয়ার আগেও বিদেশ সফর করেছেন মুস্তাফিজুর রহমান। তবে প্রতিবারই সেই সফরগুলোতে তার সঙ্গে ছিলো বাংলাদেশ জাতীয় দল কিংবা অন্য কোন দল। এবারই প্রথম একা একা বিদেশ সফরে গেলেন তিনি। গেলেন আইপিএল খেলতে। তাও কলকাতা নাইট রাইডার্সে হলে এক কথা ছিল; কিন্তু তিনি গিয়েছেন সানরাইজার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে। যেখানে তিনি না বুঝতে পারেন অন্যের ভাষা, না তার ভাষা কেউ বুঝতে পারে। এ যেন এক মধুর সমস্যা।

সানরাইজার্সে বাংলা বলতে পারে এমন একজন বন্ধু পেয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। নাম তার রিকি ভুই। ২০১৪ এবং ২০১৬ ভারতীয় অনুর্ধ্ব-১৯ দলের সদস্য ছিলেন তিনি। রিকি ভুই অনেক সময়ই দলের মধ্যে দোভাষির কাজ করেন মুস্তাফিজ এবং অন্যদের মাঝে। ইএসপিএন ক্রিকইনফোতে প্রকাশিত একটি স্পেশাল প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, সানরাইজার্স ক্রিকেটারদের সঙ্গে মুস্তাফিজের কথাবার্তা কীভাবে হয় তার বর্ণনা।

ওই রিপোর্টের শেষ দিকেই খেলার বাইরে মুস্তাফিজ দিন-যাপন কীভাবে করেন, সে সম্পর্কে বর্ণনা দেন। খেলার বাইরে মুস্তাফিজ প্রায়ই একা একা থাকেন। কারণ, ভাষা সমস্যা। বাংলা ছাড়া তিনি আর কোন ভাষাতেই কথা বলতে পারেন না। অন্যদের সঙ্গে এ কারণে ভাব বিনিময়ও খুব একটা হয় না। রিকি ভুই ক্রিকইনফোকে বলেন, ‘দলের কোন ইভেন্টে যোগ দেয়া থেকে বিরত থাকার চেষ্টা করেন মুস্তাফিজ। কারণটা হলো ইংলিশে কথা বলতে পারেন না বলে।’

দলে যোগ দেয়ার পর থেকেই রিকি ভুইয়ের সঙ্গেই সবচেয়ে বেশি সময় কাটে মুস্তাফিজের। কারণটা হলো দু’জন বাংলায় কথা বলতে পারেন। রিকি ভুই নিজেই জানান, তার সঙ্গে আমার সম্পর্কটা দারুণ জমে উঠেছে। মুস্তাফিজ যে সব সময় ব্যাট করা এবং ইংরেজিতে কথা বলতে ভয় পান, সেটা তিনি নিজেই জানান, ‘সব সময় মুস্তাফিজ আমার কাছে বলেন যে, তিনি ব্যাট করা এবং ইংরেজিতে কথা বলতে ভয় পান।’






মন্তব্য চালু নেই