মেইন ম্যেনু

মৃত্যুর সঙ্গে যুবরাজের যুদ্ধ নিয়ে তথ্যচিত্র

বেশ কিছুদিন ধরেই বলিউডে চলছে বায়োপিকের জোয়ার। আর এর মূল আকর্ষণে ছিলেন মূলত ক্রিকেটাররাই। সেই ঝোঁক অনুযায়ী ইতোমধ্যে তথ্যচিত্র নির্মিত হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনি, মহম্মদ আজহারউদ্দিনকে নিয়ে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার তথ্যচিত্র নির্মিত হচ্ছে যুবরাজ সিংকে নিয়ে।

তথ্যচিত্রটি প্রযোজনা করছে অ্যাপেক্স এন্টারটেইনমেন্ট। যুক্তরাষ্ট্রের এ সংস্থাটির খেলাধুলা নিয়ে একাধিক চলচ্চিত্র নির্মাণের অভিজ্ঞতা রয়েছে। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি হলো- দ্য রকি (২০০২), মিরাকেল (২০০৪), ইনভিনসেবল (২০০৬), বিগ শট (২০১২) মিলিয়ান ডলার আর্ম (২০১৪)।

সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট মার্ক সিয়ার্ডি বলেছেন, ‘আমাদের কোম্পানি চায়, সারা বিশ্বের এমন সব কাহিনী তুলে আনতে, এমন মানুষের কথা শোনাতে, যিনি অনেক ঝড়-ঝাপটা পেরিয়েছেন। যার ঘটনা অনুপ্রাণিত করতে পারে বাকিদের।’

আর যুবরাজের জীবন কাহিনী সম্পর্কে তার মত হলো- যুবরাজের কাহিনী, শুধুমাত্র একজন ক্রিকেটারের এগিয়ে চলার গল্প নয়। তার জীবন কাহিনী, মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে। জীবন আর ক্রিকেট কেরিয়ারে যুবারজ যেভাবে সব বাধা পেরিয়েছেন, তা লোকে জানতে চান। ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ার পরও যুবরাজ যেভাবে মাঠে ফিরেছেন, ভারতীয় দলে জায়গা ফিরে পেয়েছেন তা অবিশ্বাস্য।

মৃত্যুর সঙ্গে যুদ্ধ করে ফিরে আসার গল্পটা নিয়ে একটা তথ্যচিত্র হোক, খোদ যুবরাজেরই এমন ইচ্ছে ছিল বলেও জানিয়েছেন মার্ক সিয়ার্ডি।

এই তথ্যচিত্রে যুবরাজ সিংয়ের বাবা যোগরাজ সিং এবং মা শবনম সিংকে দেখা যাবে বলে খবর রয়েছে।

তবে তথ্যচিত্রটি ঠিক কবে নাগাদ মুক্তি পেতে পারে সে বিষয়ে কোনো ইঙ্গিত কোনো পাওয়া যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই