মেইন ম্যেনু

মৃত্যুর ১৫ বছর পর কবর থেকে উচ্ছেদ! কবর স্থান তো নয়, যেন ভাড়া বাড়ি!

আমাদের সমাজে একটা প্রথা চালু রয়েছে, জীবিত অবস্থায় মানুষটি যেমনি থাকুক না কেন, কিন্তু মৃত্যুর পর আর তাকে নিয়ে কারো কোনো আপত্তি থাকেনা। সেই দেহটিকে দাফনের কাজে এগিয়ে আসেন সবাই। কবর তো কখনোই না। কিন্তু এমনি একটি ঘটনা ঘটে চলেছে সিঙ্গাপুরে। জিনিউজের এক প্রতিবেদনে এ খবর জানা যায়।

মৃত্যুর প্রায় ১৫ বছর পর কবর থেকেই উচ্ছেদ করে দেয়া হলো। একজন মানুষের মৃত্যুর পর আপন ঠিকানা হলো ‘কবর স্থান’, সেখান থেকেই সরিয়ে দেয়া হয় তার সবকিছু। ১৫ বছর পর পরই কবর স্থানের মালিক বদল হয়। একই কবর স্থানে এক বাসিন্দার পর আসেন অন্য বাসিন্দা। কবর স্থান তো নয়, যেন ভাড়া বাড়ি!

সিঙ্গাপুর, পৃথিবীর একমাত্র দেশ যেখানে কবর স্থান ভাড়া দেয়া হয়, তাও মাত্র ১৫ বছরের জন্য। ১৫ বছর এক দিনের মাথায় ওই কবর থেকে বের করে দেয়া হয় মৃতদেহ। কোনো ধর্মীয় আচরণ নয়, এটা একটা আইন। সিঙ্গাপুর সরকার ১৯৯৮ সালে এই নিয়ম চালু করে। কোনো রকম সমালোচনা যে হয়নি, তেমনটা নয়। অনেকের মতে, এই আইনের কারণে ধর্মীয় ভাবধারার ওপর আঘাত আসছে। সৎকারের নিয়ম মানতে পারছে না সিঙ্গাপুরের মানুষ। কিন্তু মানুষ এই নিয়ম মেনেই কবর স্থান বেছে নিচ্ছেন।






মন্তব্য চালু নেই