মেইন ম্যেনু

মেক্সিকোয় নির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতা তুঙ্গে

৭ জুন অনুষ্ঠিতব্য মেক্সিকোর মধ্যবর্তী নির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতা দানা বাঁধছে।

উদ্ভব ঘটেছে এক বিপ্লবা শিক্ষক জোটের। সংগঠনটি ধারাবাহিকভাবে পাঁচটি রাজনৈতিক দলের দপ্তরে হামলা চালিয়েছে।

দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় চিয়াপস প্রদেশে এ ঘটনা ঘটে।

চিয়াপাস ছাড়াও গুয়েরেরো প্রদেশে একটি রক্ষণশীল রাজনৈতিক দলের দপ্তরে ঘটেছে বোমাহামলার ঘটনা।

এছাড়া সম্প্রতি মাদক সংক্রান্ত ব্যবসায়ে লভ্যাংশের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন একাধিক প্রার্থী ও সমর্থক।

mexico protest against election 2

আসছে রোববার, মধ্যবর্তী নির্বাচনে সাংসদ, প্রাদেশিক শাসনকর্তা এবং শহরভিত্তিক মেয়র নির্বাচিত হবেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, মেক্সিকোর সাম্প্রতিক নির্বাচনকেন্দ্রিক সহিংসতা অতীতের যে কোনো রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যায়।

সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠা প্রদেশ দুটি হলো গুয়েরেরো এবং ওক্সাকা। এ দুটি প্রদেশে সম্প্রতি নির্বাচনবিরোধীরা হাজার হাজার ব্যালট পুড়িয়ে ফেলেছে।

বিক্ষোভকারীরা ওক্সাকা প্রদেশে অবস্থিত ক্ষমতাসীন পিআরআই পার্টির দপ্তরে ঢুকে আসবাব ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বাইরে নিয়ে এসে তাতে অগ্নিসংযোগ করে।

mexico protest against election

এছাড়া গুয়েরেরোয় অবস্থিত পিআরআই-এর দপ্তরের সামনেও চলে একই রকম বিধ্বংসী কর্মকাণ্ড।

মেক্সিকোর বর্তমান রাষ্ট্রপ্রধান, ২০১২ সালের জাতীয় নির্বাচনে বিজয়ী এনরিক পেনা নিয়েতোর জন্যে উদ্ভূত পরিস্থিতিকে একটি অগ্নিপরীক্ষা হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই