মেইন ম্যেনু

মেডিকেলে ভর্তিচ্ছুদের ওপর পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত ৫

মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ এনে পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে ভর্তিচ্ছুদের চলমান আন্দোলনে লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। এতে অন্তত পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বুধবার বিকেল ৪টার কিছু আগে রাজধানীর কাওরান বাজার মোড়ে সোনারগাঁও হোটেলের সামনের রাস্তায় লাঠিচার্জের এ ঘটনা ঘটে।

এতে আহতরা হলেন- আরাফাত (১৮), জাহিদ (২০), তানজিল (২০), ডা. আশরাফ উদ্দিন, ডা. বোরহান উদ্দিন।

তেজগাঁও থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম জানান, শিক্ষার্থীরা শাহবাগ থেকে মহাখালীর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে যাওয়ার পথে কাওরান বাজারে সোনারগাঁও হোটেলের সামনে পুলিশ তাদের বুঝিয়ে সেখান থেকে ফিরিয়ে দেয়। তবে লাঠি চার্জের কথা অস্বীকার করেন ওসি মাজহার।

এদিকে, মেডিকেলে পুনঃভর্তি পরীক্ষাসহ ৪ দফা দাবিতে সারাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলছে ছাত্র ধর্মঘট। এছাড়াও দেশের মহানগর ও জেলার পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ সমাবেশ চলছে।

চলমান ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্য। তারই ধারাবাহিকতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও চলছে ছাত্র ধর্মঘট। কলা ভবনে কোনো ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার খবর না পাওয়া গেলেও বিজনেস ফ্যাকাল্টি, কার্জন হল ও সমাজবিজ্ঞান অনুষদের কয়েকটি বিভাগে ক্লাস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল ৮টা থেকে চলমান এ ধর্মঘটে অনেকটা অচল হয়ে পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। সকাল থেকেই প্রগতিশীল ছাত্র জোট ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্যের নেতারা ক্যাম্পাসের বিভিন্ন ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। তারা কলা ভবনের মূল ফটকে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে প্রবেশে বাধা দেয়।

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর সারাদেশের সব মেডিকেল কলেজ ও ডেন্টাল কলেজগুলোর ভর্তিপরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার আগের রাত থেকে সকাল পর্যন্ত প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া যায়।






মন্তব্য চালু নেই