মেইন ম্যেনু

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ১০০ নম্বরে পেয়েছে মাইনাস ১৭!

দেশের মেডিকেল কলেজগুলোতে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফল আজ সোমবার বিকেলে প্রকাশিত হয়েছে। ফল প্রকাশের পর থেকে হাজার হাজার শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা স্বাস্থ্য অধিদফতরের ওয়েবসাইটে রোল নম্বর লিখে মেধাতালিকায় সুযোগ হয়েছে কিনা তা দেখছেন।

কেউ সুযোগ পেয়ে আনন্দ উল্লাস করছে আবার কেউবা কাঁদছে। তবে ফলাফল যাই হোক না কেন ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষায় কে সর্বোচ্চ নম্বর পেল ও কোন সৌভাগ্যবান পরীক্ষার্থী সরকারি মেডিকেল কলেজে সর্বশেষ সুযোগ পেল তা জানার আগ্রহ সবার মাঝে লক্ষ্য করা গেছে।

প্রকাশিত ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী সর্বোচ্চ ৮৫ দশমিক ৫ পেয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজে সুযোগ পেয়েছে এক ছাত্র। ৬২ দশমিক ৭৫ নম্বর পেয়ে সরকারি পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজে সর্বশেষ সুযোগ পেয়েছে আরেক ছাত্র। তবে উপজাতি কোটায় আরো কম নম্বর পেয়েও ভর্তির সুযোগ পেয়েছে বলে জানা গেছে।

এ প্রতিবেদক কৌতূহলবশত সবচেয়ে বেশি নম্বরধারীর পাশাপাশি ভর্তি পরীক্ষায় সবচেয়ে কম কত নম্বর পেয়েছে তা জানার জন্য ফলাফল প্রকাশে জড়িত এক কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি জানান, ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষায় সর্বনিম্ন মাইনাস ১৭ পেয়ে কমিটির দৃষ্টিতে এসেছে এক পরীক্ষার্থী। সবার আগ্রহ ওই পরীক্ষার্থী কে, সে ওএমআর শিটে কি দাগিয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন কর্মকর্তা বলেন, পরীক্ষার্থীই বটে!

এ খবরের সত্যতা জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ রাতে বলেন, মাইনাস ১৭ পাওয়া পরীক্ষার্থী ওএমআর শিটে উল্টাপাল্টা দাগিয়েছে।

উল্লেখ্য, পরীক্ষার নিয়মানুযায়ী প্রতিটি ভুল নম্বরের জন্য দশমিক ২৫ নম্বর কাটা যায়।

গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত ভর্তি পরীক্ষায় মোট ৮৫ হাজার ২০৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এদের মধ্যে ২৯ হাজার ১৮৩ জন পাস করেছে। আর ফেল করেছে ৫৬ হাজারেরও বেশি পরীক্ষার্থী।






মন্তব্য চালু নেই