মেইন ম্যেনু

মেসির ভাবনায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল

স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার সুপারস্টার লিওনেল মেসি জানিয়েছেন, তিনি ও তার সতীর্থরা ইউএফএ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে পৌঁছতে নিরলস পরিশ্রম করেছেন। ফাইনাল জিততেও একইভাবে পরিশ্রম করবেন।

আগামী ৭ জুন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপার জন্যে লড়বে বার্সেলোনা ও জুভেন্টাস। বার্লিনে দুই ক্লাব পরাশক্তির ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।

ইউএফএ’র মিডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আর্জেন্টিনার তারকা মেসি বলেন, ‘এটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল। এখানে আসতে আমাদেরকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। আমরা জানি এখানে আসা যতটা না কঠিন, শিরোপা জয় করা তার থেকেও বেশি কঠিন হবে। তবে আমরা জানি, শিরোপা জয়ের জন্যে আমাদের কী করতে হবে। এটি ভিন্ন একটি ম্যাচ। আমাদেরকেও ভিন্ন কিছু করতে হবে।’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদকে সেমিফাইনালে হারিয়ে ফাইনালে উঠে জুভেন্টাস। গত বছর ট্রেবল শিরোপা জয়ীদেরকে দুই লেগে দাঁড়াতেই দেয়নি জুভেন্টাস। রোনালদো, বেল ও রদ্রিগেজদের মাটিতে নামিয়ে এনে ১২ বছর পর লিগের ফাইনালে ওঠে জুভেন্টাস। ১৯ বছর পর এখন শিরোপার স্বপ্নও দেখছে ক্লাবটি।

লিওনেল মেসিও বললেন, ‘জুভেন্টাসকে হারানো সহজ হবে না।’

এক প্রশ্নের জবাবে খুদে জাদুকর বলেন, ‘ফাইনালে আমরা বেশ শক্তিশালী ও কঠিন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলব। ফাইনাল বলেই যে কোনো কিছু হতে পারে। ভাগ্য যে কারো পক্ষে যেতেই পারে। তাদেরকে আমরা হাল্কাভাবে নিচ্ছি না। এর আগে যেভাবে আমরা ফাইনালের প্রস্তুতি নিয়েছি এবারও সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

২০০৯ সালে রোমে ও ২০১১ সালে লন্ডনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে একটি করে গোল করে দলকে শিরোপা এনে দিয়েছিলেন মেসি। এবারও কি সে রকম কিছু তার অপেক্ষায়! স্বল্পভাষী মেসির উত্তর, ‘ওগুলো আমার ক্যারিয়ারের সেরা সময়। প্রথম গোলটার থেকে দ্বিতীয় গোলটি আমার কাছে স্পেশাল। প্রথম গোলটির কারণে আমরা ২-০ ব্যবধানে ট্রফি পাই। কিন্তু দ্বিতীয় গোলে আমরা ২-১ ব্যবধানে জিতে যায়।’

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি স্পোর্টস






মন্তব্য চালু নেই