মেইন ম্যেনু

মোবাইলে রিং হচ্ছে ভারতের নিখোঁজ বিমানে!

বিমানবাহিনীর নিখোঁজ বিমান এএন ৩২-কে ঘিরে রহস্য আরো জটিল হলো একটি মোবাইল ফোনকে কেন্দ্র করে৷ নিখোঁজ বিমানের আরোহী সেনাকর্তা রঘুবীর ভার্মার মোবাইল ফোন চালু রয়েছে৷ বিমান নিখোঁজ হওয়ার এক সপ্তাহ পর, শুক্রবার সকালে তার নম্বরে ফোন করা হলে সেটির রিং হয়েছে বলে দাবি করেছেন রঘুবীরের পরিবার৷ রঘুবীর নিখোঁজ হওয়ার চারদিন পর অর্থাত্‍ ২৬ জুলাই শেষ হোয়াটসঅ্যাপ খুলে দেখেছিলেন বলেও জানিয়েছেন তার নিকটজনেরা৷ এরপরই বিমানবাহিনীর বিমান অন্তর্ধান নিয়ে রহস্য আরো ঘনীভূত হয়েছে৷

এদিকে, এএন ৩২ বিমানটি খুঁজে পেতে আমেরিকার কাছে সাহায্য চাইবে ভারত, জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী৷ বিমান নিখোঁজের ঘটনা নিছক দুর্ঘটনা নাকি অন্তর্ঘাত তা নিয়েও সংশয় কাটেনি৷ বিদেশি আক্রমণ, এছাড়া অন্য কোনো রহস্যময় অজানা কারণে বিমান অন্তর্ধান হতে পারে বলেও আশঙ্কা রয়ে গিয়েছে৷

চেন্নাই থেকে পোর্টব্লেয়ার যাওয়ার পথে ২২ জুলাই নিখোঁজ হয়ে যায় বিমানবাহিনীর এএন ৩২ বিমানটি৷ বঙ্গোপসাগরে নজিরবিহীন তল্লাশি অভিযান চললেও এখনও বিমান বা তার আরোহী ২৯ জনের কোনো খবর নেই৷ পাওয়া যায়নি বিমানের ধবংসাবশেষেও৷ গতকালই প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিক্কর জানিয়েছিলেন, এক সপ্তাহ তল্লাশি চালিয়েও নিখোঁজ বিমানের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি৷

এরপরই রঘুবীর ভার্মার পরিবারের দাবিতে ফের আশার আলো দেখছে উদ্ধারকারী দল ও বিমানবাহিনী৷ রঘুবীরের মোবাইলের সূত্র ধরে যদি বিমানের উপস্হিতি খুঁজে পাওয়া যায়, সেই আশাতেই নতুন করে তল্লাশি অভিযান শুরু করার কথা ভাবছে ভারতীয় বিমানবাহিনী৷ রঘুবীরের ব্যবহার করা এয়ারটেলের সিম কার্ডটি রাজস্থানের বারমেরে রেজিস্টার করা ছিল৷






মন্তব্য চালু নেই