মেইন ম্যেনু

মেয়ের প্রেমে কাঁটা হলেন মা!

কী-ই বা এমন হয়েছিল! দু-একটা চুমু ছাড়া তো কিছু নয়! কিন্তু, তাতেই রেগে আগুন হয়ে উঠেছেন শ্রীদেবী। মেয়েকে সোজা বলে দিয়েছেন- ‘বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে আর দেখা করা চলবে না!’

নায়িকা হয়েও বড় মেয়ে জাহ্নবীকে কেন এমন কড়া শাসনে বাঁধছেন শ্রীদেবী? তার তো এটা জানাই আছে যে, সংবাদমাধ্যম সেলিব্রিটিদের ব্যক্তিজীবনের খোঁজ করার জন্য কেমন মুখিয়ে থাকে! সেটি তো আবার ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে সুবিধাও দেয় সেলিব্রিটিদের। তাহলে?

বলিউডে শ্রীদেবীর ঘনিষ্ঠ-মহল বলছে, তিনি না কি অত্যন্ত রক্ষণশীল এক নায়িকা! কোনো কাজ তিনি মায়ের সঙ্গে পরামর্শ না করে করতেন না। মায়ের শাসন মাথা পেতে নিয়েই তিনি বড় হয়েছেন। সেই জন্য শাসনটাই এখন ফিরিয়ে দিচ্ছেন মেয়েদেরও!

তবে আরো একটা কারণ থাকতে পারে। শ্রীদেবী হয়তো মেয়েকে জনতার অতিরিক্ত কৌতূহল আর বিতর্কের হাত থেকে আগলেই রাখতে চাইছেন। তিনি তো ভালই জানেন, এই ভারতীয় সমাজে মেয়েদের নিয়ে কীরকম কথা চালাচালি হয়! তার উপরে ভাইরাল হয়েছে বয়ফ্রেন্ড শিখর পাহরিয়ারের সঙ্গে জাহ্নবীর ঠোঁটে ঠোঁট ছোঁওয়ার দৃশ্য! তা দেখে দৃশ্যসুখ পাচ্ছেন অনেক বিকৃতমনস্কও! মা হিসেবে শ্রীদেবীর সেসব ভাল না-লাগারই কথা!

ফলে, ইচ্ছে না থাকলেও আপাতত প্রায় ঘরবন্দি হয়ে রয়েছেন জাহ্নবী। শুধু যে বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে দেখা করা বন্ধ, তা-ই নয়! পাশাপাশি, মেয়ের কাছাকাছি কোনো ছেলে বন্ধুকেই ঘেঁষতে দিচ্ছেন না শ্রীদেবী! তার কেবল একটাই কথা- এখন কেরিয়ারে মন দিক জাহ্নবী! অনেক ছবির অফারই আসছে, তার কোনো একটা সই করে বলিউডে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করুন তিনি! তবে, কোন ছবি করবেন জাহ্নবী, মনে হয় সেটাও ঠিক করে দেবেন শ্রীদেবীই!






মন্তব্য চালু নেই