মেইন ম্যেনু

মোদিকে ঘিরে ব্ল্যাক ক্যাট, এসেছে বুলেট প্রুফ গাড়ি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরে তার চারপাশে নিরাপত্তাবলয় তৈরি করে রাখছে ভারতের বিশেষ কমান্ডো বাহিনী ব্ল্যাক ক্যাট-এর সদস্যরা। আর ভারত থেকে আনা বুলেট প্রুফ গাড়িতে করেই ঢাকায় ঘুরছেন তিনি। তার ব্যবহারের গাড়ি বাংলাদেশে আগেই চলে এসেছে। এসেছেন ব্ল্যাক ক্যাটের সদস্যরাও। সঙ্গে রয়েছে ভারতের স্পেশাল প্রটেকশন গ্রুপ (এসপিজি)। মোদির বহরে থাকা গাড়িগুলোর অধিকাংশই ভারত থেকে এসেছে।

যেসব ভেন্যুতে মোদি যাবেন সেগুলো আগেভাগেই পরিদর্শন করেছেন ব্ল্যাক ক্যাটের সদস্যরা। নিরাপত্তার কোথাও ছিদ্র রাখা হয়নি। পাশাপাশি জরুরি ব্যবস্থা হিসেবেও সার্বিক প্রস্তুতি নিশ্চিত করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। বাংলাদেশের স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) সঙ্গে সমন্বয় করেই নিরাপত্তা ব্যূহ তৈরি করেছে ভারতের এই কমান্ডো বাহিনী। পাশাপাশি প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ, র‌্যাব ও এসপিবিএন। তারা মোদির চলাচলের সময় সড়কের দুই পাশে দায়িত্ব পালন করবেন।

শনিবার সকাল সোয়া ১০টায় ঢাকায় পৌছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী অবস্থান করবেন ৩৪ ঘণ্টা। ১২টি ভেন্যুতে ১৩টি নির্ধারিত প্রোগ্রামে অংশ নেবেন তিনি। তার চলাচলের সময় রাজধানীর কোনো সড়কে যানচলাচলে তেমন কোনো পরিবর্তন আসছে না। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) মীর রেজাউল আলম জানান, মোদি ও তার সফরসঙ্গীদের চলাফেরার জন্য যানচলাচলের ক্ষেত্রে ঠিক যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু কড়াকড়ি আরোপ করা হবে।

রাজধানী ঢাকার রাস্তায় চলাফেরার সময় মোদীর গাড়িবহর ঘিরে বিশেষ নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকবে। পাশাপাশি জাতীয় স্মৃতিসৌধ, বঙ্গবন্ধু জাদুঘর, হোটেল সোনারগাঁও, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, রামকৃষ্ণ মিশন মঠ, ঢাকেশ্বরী মন্দিরসহ যেসব জায়গায় মোদি যাবেন সেসব স্থাপনায় ইতিমধ্যে নিরাপত্তাবলয়ের মধ্যে নিয়ে নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ওই সব স্থাপনায় সাধারণ মানুষের চলাফেরার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই