মেইন ম্যেনু

বক্সিংয়ের কিংবদন্তী মোহাম্মদ আলি আর নেই

বক্সিংয়ের কিংবদন্তী মোহাম্মদ আলী (৭৪) আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। স্থানীয় সময় শুক্রবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা রাজ্যের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মোহাম্মদ আলী পরিবারের মূখপাত্র বব গানেল জানান, শুক্রবার অ্যারিজোনার ফিনিক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোহাম্মদ আলীর মৃত্যু হয়েছে। কেন্টাকিতে মোহাম্মদ আলীর নিজ শহর লুইজভিলেতে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

এর আগে শ্বাসযন্ত্রের সমস্যার কারণে বৃহস্পতিবার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় মোহাম্মদ আলীকে। শুক্রবার বিকেলে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে শুরু করে।

বক্সিং ছেড়ে দেওয়ার পর ১৯৮৪ সাল থেকে পারকিনসন রোগে ভুগছিলেন মোহাম্মদ আলী। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে ফুসফুসের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি । ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে মূত্রাশয়জনিত জটিলতায় চিকিৎসা করাতে হয় তাকে।

তিনবারের হেভিওয়েট বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন মোহাম্মদ আলী নিজেকে বক্সিংয়ের ‘দ্য গ্রেটেস্ট’ দাবি করতেন। এ দাবি তার জন্য ন্যায়সঙ্গতই ছিলো। ব্যাপক জনপ্রিয় এই খেলোয়াড় তার সামাজিক কর্মকাণ্ডের জন্যও সবার কাছে পরিচিত ছিলেন।

১৯৬০ সালে রোম অলিম্পিকে লাইট হেভিওয়েটে স্বর্ণপদক জিতে নজরে আসেন মোহাম্মদ আলী। এরপর ১৯৬৪ সালে সনি লিস্টনকে পরাজিত করে প্রথমবারের মতো বক্সিংয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের খেতাব জিতেন তিনি। ১৯৭১ সালের মার্চে জো ফ্রেজিয়ারের মুখোমুখি হন মোহাম্মদ আলী, যা `শতাব্দীর সেরা লড়াই` হিসাবে পরিচিত। বহুল আলোচিত এ লড়াইটি ছিলো দুই মহাবীরের লড়াই । জো ফ্রেজিয়ার এতে জয়লাভ করেন এবং আলী প্রথমবারের মত পরাজিত হন। ১৯৭৪ সালের ফিরতি লড়াইয়ে মোহাম্মদ আলী শিরোপা পুনরুদ্ধার করেন।

ক্লে সিনিয়র ও ওডিসা গ্র্যাডি ক্লে দম্পতির সন্তান ক্যাসিয়াস মারকেলাস ক্লে জুনিয়রের জন্ম ১৯৪২ সালের ১৭ জানুয়ারি। ১৯৭৫ সালে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে নিজের নাম পাল্টে মোহাম্মদ আলী রাখেন ক্লে জুনিয়র।






মন্তব্য চালু নেই