মেইন ম্যেনু

মৌসুমী হামিদের প্রেমে মজেছেন মোশাররফ করিম

এ সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদের প্রেমে মজেছেন মোশাররফ করিম। ঘটনাটা বাস্তব জীবনের নয়। মৎস্যপল্লীর মানুষের জীবন নিয়ে নির্মিত ঢেউ শিরোনামের টেলিফিল্মের গল্পে এমন চরিত্রে দেখা যাবে তাদের। এমনটাই জানিয়েছেন নির্মাতা মাহমুদুল ইসলাম টিপু।

টেলিফিল্মের গল্প প্রসঙ্গে নির্মাতা মাহমুদুল ইসলাম টিপু বলেন, ‌‌‌‌‌‌‘কুয়াকাটার সমুদ্রপাড়ের মৎস্যপল্লীর কিছু মানুষ। সমুদ্রকে কেন্দ্র করেই যাদের জীবনযাপন। বাদশা ও হারুন এই পল্লীরই দুই ছেলে। তারা খুব কাছের বন্ধু, কিন্তু সুযোগ পেলেই একজন আরেকজনের পেছনে লেগে যায়। কাজলী নামের মেয়েটাকে দুজনেই পছন্দ করে। এ নিয়ে সারাক্ষণই দু’জনের মধ্যে খুনসুটি লেগে থাকে।’

hamid1

তিনি আরো বলেন, ‘জামাল ফকির নামের এলাকার এক মাতব্বর জেলে পল্লী উচ্ছেদ করে সেখানে ফ্যাক্টরি বানাতে চায়। এর বিরুদ্ধে গ্রামবাসী এক হয়ে যায়। শুরু হয় সাধারণ মানুষের সঙ্গে ক্ষমতাবানদের দ্বন্দ্ব। সুযোগ পেয়ে বাদশাকে শায়েস্তা করার জন্য হারুন চলে যায় শত্রুপক্ষের সঙ্গে। অন্যদিকে বাদশা দিনে দিনে মজতে থাকে কাজলীর প্রেমে। শত্রুপক্ষ এক সময় মামলায় ফাঁসিয়ে দেয় বাদশাকে- এভাবেই এগিয়ে গেছে এ টেলিফিল্মের গল্প।’

মাহমুদুল ইসলাম টিপুর রচনা ও চিত্রনাট্যে এতে বাদশা চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, কাজলী চরিত্রে মৌসুমী হামিদ। আর হারুন চরিত্রে দেখা যাবে মারজুক রাসেলকে।

hamid

এছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন- সিরাজুম মুনির টিটু, এ কে আযাদ সেতু, রেবা ঘোষ, সুকান্ত মুখার্জি বাবু, অপূর্ব রয়, তন্ময় সাহা, তানভির লিমন, শান, লামিয়া, এ্যানি, মো। ইয়াসিন প্রমুখ।

পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া থানার তেলিখালী ও পটুয়াখালী জেলার কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন স্থানে এ টেলিফিল্মের শুটিং সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্মাতা। ২৯ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে মাছরাঙা টেলিভিশনে টেলিফিল্মটি প্রচারিত হবে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই