মেইন ম্যেনু

যশোর সেনানিবাসে সেনা সদস্যের গলা কাটা লাশ

যশোর সেনানিবাসের ব্যারাকে এক সেনা সদস্যের গলা কাটা লাশ পাওয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

কোতোয়ালি থানার ওসি সিকদার আক্কাস আলী জানান, বৃহস্পতিবার গভীর রাতের কোনো এক সময় এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

নিহত হেলাল উদ্দিন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৮ ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যাটালিয়নে সৈনিক পদে কর্মরত ছিলেন। তিনি জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ গ্রামের নূরুল হকের ছেলে।

ওসি সিকদার জানান, সকালে থানা থেকে মিরাজ মোসাদ্দেক নামের একজন উপ পরিদর্শককে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। পরে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে সঙ্গে নিয়ে তিনি নিজেও সেখানে যান।

যশোর কোতোয়ালি থানার ডিউটি অফিসার মঞ্জুর আলী খান বলেন, “হেলালসহ নয়জন সেনা সদস্য ব্যারাকের ওই কক্ষে থাকতেন। ভোর ৪টার দিকে হেলালকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

ঘটনার পর থেকে ওই কক্ষের আরেক সেনা সদস্যকে দেখা যাচ্ছে না বলে শোনা গেলেও যশোর সেনানিবাস কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে সাংবাদিকদের কোনো তথ্য দেয়নি।

সহকারী পুলিশ সুপার ভাস্কর সাহা বলেন, “সব কিছু দেখে মনে হচ্ছে হেলাল আত্মহত্যাও করে থাকতে পারেন্। বিষয়টি নিয়ে আমরা আমাদের মত করে এবং সেনা কর্তৃপক্ষ তাদের মত করে তদন্ত করব।”

সিএমএইচ থেকে হেলালের মরদেহ যশোর জেনারেল হাসপাতলের মর্গে নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই