মেইন ম্যেনু

যানজটের মূল কারণ প্রাইভেট কার

রাজধানীর ৫ শতাংশ বাসিন্দা চলে প্রাইভেট কারে করে, এ জন্য সড়কের ৭০ ভাগ জায়গা দখল করে রাখে। এরপরও ঢাকা শহরে প্রতিদিন শতাধিক নতুন কারের নিবন্ধন দেওয়া হচ্ছে। এই তথ্য উল্লেখ করে ১৩টি পরিবেশবাদী সংগঠন থেকে অভিযোগ করে বলা হয়েছে, ঢাকা শহরের যানজটের অন্যতম কারণ প্রাইভেট কার। তাই যানজট নিরসনে প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণ-বিষয়ক নীতিমালা করতে হবে। গতকাল রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কয়েকটি সংগঠনের কর্মসূচি থেকে এসব দাবি জানানো হয়।

বিনামূল্যে বা নামমাত্র মূল্যে কারের পার্কিং সুবিধা, ঋণসুবিধাসহ নানা সুবিধা রয়েছে। কর্মসূচিতে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন বাস, রেল, নৌপথ, হাঁটা ও রিকশাসহ এসব মাধ্যমে ৯৫ শতাংশ মানুষ চলাচল করলেও এ জন্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হয়নি। সে কারণে অনেকেই বাধ্য হয়ে প্রাইভেট কার কিনছেন। হাঁটা, সাইকেল, রিকশার সঙ্গে সমন্বয় করে উন্নত গণপরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়নের পাশাপাশি প্রাইভেট কারের পার্কিং ফি বৃদ্ধি, যানজট মাশুল আরোপ, আমদানি কর বাড়ানো, কিছু গলি রাস্তায় নিষিদ্ধ করাসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানান তাঁরা।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ ফোরাম, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন, বিসিএইচআরডি, পরিবর্তন চাই, গ্রীনমাইন্ড সোসাইটি, আইনের পাঠশালা, পরিবেশ উন্নয়ন সোসাইটি, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, বারসিক, প্রত্যাশা ও ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট-এর যৌথ আয়োজনে ‘যানজট হ্রাসে প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণে নীতিমালা চাই’ শীর্ষক অবস্থান কর্মসূচিটি পালিত হয়।

নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ ফোরামের সভাপতি হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট নেটওয়ার্কের (বেন) অস্ট্রেলিয়ার চ্যাপ্টারের সমন্বয়কারী কামরুল আহসান খান, ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্টের কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মারুফ হোসেন।






মন্তব্য চালু নেই